•       ধর্ষণের অভিযোগে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া থানার ওসিসহ তিন পুলিশের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা
সাংস্কৃতিক রিপোর্টার    |    
প্রকাশ : ১৭ নভেম্বর, ২০১৬ ০০:০০:০০
সাহিত্যের উৎসব ঢাকা লিট ফেস্ট আজ শুরু
ঢাকায় আজ শুরু হচ্ছে সাহিত্যের উৎসব ঢাকা লিটারারি ফেস্টিভ্যাল, যা ঢাকা লিট ফেস্ট নামে পরিচিত। এ উৎসব চলবে শনিবার পর্যন্ত। গেল পাঁচ বছরের ধারাবাহিকতায় বাংলা একাডেমি চত্বরে শুরু হচ্ছে এ উৎসব। এতে ১৮টি দেশের ৬৬ জন বিদেশী এবং দেড় শতাধিক বাংলাদেশী সাহিত্যিক-লেখক-গবেষক তিন দিনে ৯০টি বিশেষ অধিবেশনে অংশ নেবেন। এবারের সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন ত্রিনিদাদের নোবেল বিজয়ী সাহিত্যিক ভিএস নাইপল। এ সময় তার সঙ্গে থাকবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। উৎসব প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত সাড়ে ৭টা পর্যন্ত চলবে। যাত্রিকের এ আয়োজনে সহযোগিতা করছে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়।
জানা গেছে, আজ প্রথমদিনে উৎসবের সাতটি মঞ্চে ২৩টি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। যাতে সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় থাকছে প্রয়াত সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক নিয়ে বিশেষ স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান। যাতে আলাপচারিতায় অংশ নেবেন সৈয়দ হকের ছেলে দ্বিতীয় সৈয়দ হক, সাজ্জাদ শরীফ, আহমদ মাযহার ও পারভেজ হোসেন। সে সঙ্গে তার ‘নীল দংশন’ উপন্যাসের অংশবিশেষ ইংরেজিতে মঞ্চায়িত হবে।
পুরো আয়োজন নিয়ে উৎসব পরিচালক সাদাফ সায্? বলেন, বাংলাদেশের সাহিত্য, ঐতিহ্য, জগতের কাছে তুলে ধরতেই এ আয়োজন। বিশেষ করে পালা, জারি গান, বেহুলা-লক্ষ্মীন্দরের জারিসহ উৎসবের অন্যতম সহযোগী ব্র্যাকের সংস্কৃতি বিভাগ গ্রাম পর্যায়ে যেসব কাজ করছে সেগুলোও তুলে ধরা হবে।
এবারের আয়োজনে প্রথমবারের মতো সাহিত্যে নোবেল বিজয়ী ভিএস নাইপলের পাশাপাশি বড় সব সাহিত্য পুরস্কার বিজয়ীরা অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে রয়েছে ম্যান বুকার পুরস্কারপ্রাপ্ত ডেবোরাহ স্মিথ, ইউরোপিয়ান প্রাইজ ফর লিটারেচারপ্রাপ্ত ইভি ওয়াইল্ড, পুলিৎজার পুরস্কারপ্রাপ্ত ভারতীয় বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের কবি বিজয় শেষাদ্রি, উত্তর কোরিয়ার লেখক হাইয়েনসিও লি, থাইল্যান্ডের প্রাবদা ইয়ুন, অস্ট্রেলিয়ার টিম কুক প্রমুখ। এছাড়াও বিবিসির সাউথ এশিয়ার ব্যুরো চিফ জাস্টিন রোলেন, এনডিটিভির সাংবাদিক বারখা দত্ত ছাড়াও প্রখ্যাত সাংবাদিকরাও আসছেন এ উৎসবে।
আয়োজকরা জানান, নিরাপত্তার খাতিরে বড় ব্যাগ নিয়ে উৎসবস্থলে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। দর্শনার্থী ও সাহিত্যপ্রেমীরা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিবন্ধন করে এ উৎসবে অংশ নিতে পারবেন। নিবন্ধন ও উৎসবের সার্বিক তথ্য পাওয়া যাবে উৎসবের নিজস্ব ওয়েবসাইট িি.িফযধশধষরঃভবংঃ.পড়স। এছাড়া উৎসবস্থলেও নিবন্ধন করে প্রবেশ করা যাবে।
এবারের আয়োজনের মূল পৃষ্ঠপোষক ঢাকা ট্রিবিউন ও বাংলা ট্রিবিউন। এ উৎসবের প্ল্যাটিনাম স্পন্সর ব্র্যাক, গোল্ড স্পন্সর এনার্জিস ও পূর্ণভা, গোল্ড পার্টনার ব্রিটিশ কাউন্সিল, সিলভার স্পন্সর হিসেবে রয়েছে ক্রিস্টোফারসন রব অ্যান্ড কোম্পানি ও ইউল্যাব।
শহীদ মিনারে পথনাটক পরিষদের অনুষ্ঠান শুরু : বাংলাদেশ পথনাটক পরিষদের রজতজয়ন্তী উপলক্ষে শুরু হয়েছে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা। ‘জঙ্গিবাদ নারী ও শিশু নির্যাতন রুখবে এবার জনগণ’ স্লোগানে বুধবার শুরু হয়েছে নিয়মিত পথনাটক অভিনয় মৌসুম ও রজতজয়ন্তীর অনুষ্ঠানমালা। বিকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বেলুন উড়িয়ে এ অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দীন ইউসুফ, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক ও গ্র“প থিয়েটার ফেডারেশনের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী লাকী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ ও সাধারণ সম্পাদক হাসান আরিফ, আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আহকাম উল্লাহ, পথনাটক পরিষদের প্রতিষ্ঠাকালীন আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম মাহমুদ। অনুষ্ঠানের সূচনাতেই স্বাগত বক্তব্য দেন পথনাটক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মেদ গিয়াস। সভাপতিত্ব করেন পথনাটক পরিষদের সভাপতি মান্নান হীরা। সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘এক শ্রেণীর অপশক্তি দেশের শান্তির বিঘ্ন করছে। নানা স্থানে অরাজকতা-অস্থিরতা সৃষ্টি করছে। এসব অস্থিরতা-জঙ্গিবাদ-নারী-শিশু নির্যাতন সহ্য করা হবে না। প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শনায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সংস্কৃতিকর্মীদের এ আন্দোলনে শামিল হতে হবে। নানা রকম আয়োজনের মাধ্যমে সাংস্কৃতিক আন্দোলন গড়ে তুলে শান্তি বজায় রাখতে হবে।’
উদ্বোধনী দিনে অভিনীত হয় মান্নান হীরা রচিত ও নাসির উদ্দীন ইউসুফ নির্দেশিত এবং বাংলাদেশ পথনাটক প্রযোজিত হত্যা-ধর্ষণবিরোধী পথনাটক ‘শিকারী’। এর আগে উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করে প্রাচ্যনাট। তাদের এ পরিবেশনায় উঠে আসে হলি আর্টিজানের জঙ্গি হামলা থেকে শুরু করে সম্প্রতি নাসিরনগরে সংখ্যালঘুদের হামলার বিভিন্ন দিক।



  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by