•       বনানীতে ছাত্রী ধর্ষণ মামলা: আদালতে স্বীকারোক্তি দিচ্ছেন নাঈম আশরাফ
যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০:০০ | অাপডেট: ২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:২৬:৪৫
৬ হাজার কোটি টাকায় দুই খাদ্য ব্র্যান্ড বিক্রি করছে ইউনিলিভার
বহুজাতিক ভোগ্যপণ্য প্রস্তুতকারক কোম্পানি ইউনিলিভার প্রায় ৭ দশমিক ৪৪ বিলিয়ন ডলার বা স্থানীয় মুদ্রায় ৫৯ হাজার ৫২০ কোটি টাকায় (প্রতি ডলার ৮০ টাকা ধরে) তার দুটি খাদ্যপণ্য ব্র্যান্ড বিক্রি করতে যাচ্ছে। ব্র্যান্ড দুটি হচ্ছে ফ্লোরা মার্জারিন ও স্টর্ক বাটার। খবর রয়টার্স। বেসরকারি ইকুইটি প্রতিষ্ঠান বেইন ক্যাপিটাল, সিভিসি ও ক্লাইটন ডুব্লিয়ান অ্যান্ড রাইস ইতিমধ্যে ইউনিলিভারের ওই ব্র্যান্ডে বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তবে যোগাযোগ করা হলে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি ইউনিলিভার কর্তৃপক্ষ। এর আগে মার্কিন প্যাকেটজাত খাদ্যপণ্য বিক্রেতা ক্র্যাফট হাইঞ্জ ১৪৩ বিলিয়ন ডলার বা স্থানীয় মুদ্রায় ১১ লাখ ৪৪ হাজার কোটি টাকায় ইউনিলিভারকে অধিগ্রহণের প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু ইউনিলিভার এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে। পরে অবশ্য ক্যাফট তাদের প্রস্তাবও ফিরিয়ে নেয়। অধিগ্রহণ প্রস্তাবে ইউনিলিভারের এরকম প্রতিক্রিয়া ক্র্যাফট প্রত্যাশা করেনি। তাই এ অধিগ্রহণ থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। উল্লেখ্য, এ অধিগ্রহণ বাস্তবায়ন হলে টুথপেস্ট থেকে আইসক্রিম পর্যন্ত বিভিন্ন পণ্যের বিশ্বজুড়ে সুপরিচিত অনেক ব্র্যান্ড এক ছাদের নিচে আসত। এটা ইতিহাসের তৃতীয় বৃহত্তম অধিগ্রহণ হতে পারত। ক্র্যাফট হাইঞ্জ মূলত মোড়কীকৃত খাদ্যপণ্য প্রস্তুত করে। অন্যদিকে ইউনিলিভারের ব্যবসায় খাদ্যপণ্যের অংশ ৪৩ শতাংশ। কোম্পানিটির আয়ের সিংহভাগ আসে ব্যক্তিগত কেয়ার সামগ্রীর ব্যবসা থেকে। ইউনিলিভার গত বছর খাদ্যপণ্য ব্যবসা থেকে ২ হাজার ৩০০ কোটি ডলার বা স্থানীয় মুদ্রায় ১ লাখ ৮৪ হাজার কোটি টাকা আয় করেছে। অধিগ্রহণ প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়ার পর চলতি মাসে ব্যবসা পর্যালোচনার অংশ হিসেবে ব্যাপক ব্যয় সংকোচন, শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ প্রদান ও মাঝারি মানের অধিগ্রহণের বিষয় বিবেচনা করে দেখার কথা জানায় ইউনিলিভার। গত বুধবার বহুজাতিক কোম্পানিটির প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা গ্রায়েম পিটক্যাথলি জানান, পোর্টফোলিও, ব্যয় হ্রাসে, ব্যালান্সশিট ও নগদ অর্থের ব্যবহার পর্যালোচনা করে দেখার পরিকল্পনা করেছে কোম্পানি।


 
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by