•       কোনো দলকে নির্বাচনে আনতে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করবে না নির্বাচন কমিশন: সিইসি
যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ২০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০:০০
কুলাউড়ার গৃহবধূকে সৌদিতে আটকে রেখে গণধর্ষণ
আখাউড়ায় ধর্ষণের শিকার ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা
গৃহকর্মীর কাজ দেয়ার কথা বলে কুলাউড়ার এক গৃহবধূকে সৌদি আরব নিয়ে আড়াই মাস আটকে রেখে গণধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। ওই গৃহবধূ দেশে ফিরে এসে গত ৮ মার্চ থানায় ও রোববার গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে এ অভিযোগ করেছেন। এদিকে আখাউড়ায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে বখাটের ধর্ষণের শিকার এক মাদ্রাসাছাত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে-
কুলাউড়া : গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর বাড়ি কুলাউড়া পৌর এলাকার দতরমুড়ি গ্রামে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, জয়চণ্ডী ইউনিয়নের কামারকান্দি গ্রামের মৃত আবদুল আলীর ছেলে শাহজাহান মিয়া গৃহকর্মীর কাজ দেয়ার কথা বলে গৃহবধূকে ভিসা দিয়ে সৌদি আরবে নেয়। ভিসা বাবদ ৫০ হাজার টাকা নেন শাহজাহান মিয়ার ভাই ও ভবানীপুর গ্রামের তাদের ভগ্নিপতি কনু মিয়া। ২০১৬ সালের ১৫ নভেম্বর সৌদি আরব যান ওই গৃহবধূ। সৌদি আরবে এয়ারপোর্ট থেকে গৃহবধূকে নিজের বাসায় নিয়ে যায় শাহজাহান। সেই বাসায় আটকে রেখে তাকে কয়েকবার ধর্ষণ করে শাহজাহান। পরে রোজ পাঁচ-ছয়জন করে লোককে দিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ করায়। এতে গৃহবধূ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। কিন্তু তাতেও তাকে রেহাই দেয়নি নরপশুরা। জোর করে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করে তাকে গণধর্ষণ করা হতো। অবস্থা বেগতিক দেখে ১১ ফেব্রুয়ারি গৃহবধূকে দেশে পাঠায় শাহজাহান মিয়া। দেশে ফিরে ১৫ ফেব্রুয়ারি কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি হন গৃহবধূ। পরে ৮মার্চ কুলাউড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযুক্ত শাহজাহান মিয়ার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সে ওই গৃহবধূকে সৌদি আরব নেয়ার সত্যতা স্বীকার করে। কুলাউড়া থানার ওসি মো. শামসুদ্দোহা পিপিএম জানান, অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
আখাউড়া : অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ছাত্রী আখাউড়া পৌর শহরের খরমপুর মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণীতে পড়ে। তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে দুর্গাপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে রনি ইসলাম অন্তর। প্রেমের ফাঁদে ফেলে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে রনি। সম্প্রতি ছাত্রীর শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে পরিবারের সদস্যরা তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান। ডাক্তার পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানান, সে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। লজ্জায় ছাত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় ছাত্রীর মা রোববার আখাউড়া থানায় মামলা করেন। পুলিশ রোববার দুপুরে রনিকে গ্রেফতার করেছে।



  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর
খবর বিভাগের অারও খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by