•       ফরিদপুরের সালথায় দুই ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থকদের সংঘর্ষে নিহত ১
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০:০০
কুষ্টিয়ায় রিমি হত্যায় স্বামী ইবি ছাত্রের ফাঁসি
কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের ছাত্রী স্নিগ্ধা আকতার রিমি (২০) হত্যা মামলায় তার স্বামী ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিহাব উদ্দিন শিশিরের (৩০) ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে তার এক লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেয়া হয়েছে। সোমবার দুপুরে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (প্রথম) আদালতের বিচারক রেজা মোহাম্মদ আলমগীর হাসান এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, মিরপুর উপজেলার চুনিপাড়া গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিহাব উদ্দিন শিশির ও সদর উপজেলার চৌড়হাস এলাকার আবদুল বারীর মেয়ে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের ছাত্রী স্নিগ্ধা পরিবারের অমতে পালিয়ে বিয়ে করেন। দুই পরিবার এ বিয়ে মেনে না নেয়ায় তারা উভয়ে আলাদা আলাদা ছাত্রাবাসে থাকতেন। ২০১৩ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি স্ত্রী স্নিগ্ধাকে নিয়ে শিশির তার খালার বাড়ি নওদা বহালবাড়িয়া গ্রামের মৃত আমিনুদ্দিনের বাড়ি বেড়াতে যান। সেখানে একটি কক্ষে রাতযাপনকালে øিগ্ধার বিরুদ্ধে সবুজ নামে একটি ছেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ার অভিযোগ তোলেন। øিগ্ধা অভিযোগ অস্বীকার করলে উভয়ের মধ্যে তর্ক শুরু হয়। এর জেরে ১৪ ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে স্বিগ্ধাকে গলায় ওড়নার ফাঁস লাগিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে শিশির পালিয়ে যান। ওই দিন নিহতের খালাত ভাই আবদুল্লাহ আল মামুন বাদী হয়ে মিরপুর থানায় শিশিরকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। চার দিন পর আসামি শিশিরকে পুলিশ গ্রেফতার করে। তিনি আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। পিপি জানান, গ্রেফতারের পর শিশির জামিন নিয়ে পলাতক হন। উল্লেখ্য, শিহাব উদ্দিন শিশির ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে মাস্টার্সের এবং øিগ্ধা আক্তার রিমি কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।
কিশোর ভ্যানচালক হত্যায় দু’জনের ফাঁসি : কুষ্টিয়ার মিরপুরে ভ্যানচালক কিশোর নিশানকে (১৪) গলা কেটে হত্যার দায়ে দুইজনের ফাঁসি ও প্রত্যেককে দশ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সন্টু শেখ (২১) ও মাহাবুল ইসলাম (২২)। সোমবার দুপুরে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (দ্বিতীয়) আদালতের বিচারক মো. তৌহিদুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, আসামি সন্টু শেখ ও মাহাবুল ইসলাম কিশোর নিশানের পাখিভ্যান ছিনতাই করতে তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে। এরপর পোড়াদহ বাজার থেকে একটি ধারালো ছুরি ও কটের রশি কেনে। ২০১৫ সালের ২৫ জুলাই সকাল সাড়ে ১০টায় তারা পোড়াদহ রেলগেট থেকে নিশানকে ভাড়ার কথা বলে ভ্যানসহ মিরপুর থানার ভাঙ্গা বটতলায় নিয়ে যায়। সেখানে জি কে ক্যানেলের পাশে নবীন বিশ্বাসের কলাবাগানে নিশানকে কটের রশি দিয়ে শ্বাসরোধে ও ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে। এরপর কলাবাগানে লাশ ফেলে পালিয়ে যায়।



  • সর্বশেষ খবর
খবর বিভাগের অারও খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by