গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ২১ এপ্রিল, ২০১৭ ১৭:০৬:১৬
গৌরীপুরে স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁধ নির্মাণ
আধাপাকা ধানই কেটে নিচ্ছেন কৃষক
ময়মনিসংহের গৌরীপুর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার নিম্নাঞ্চলের বোর ফসলের মাঠ তলিয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার ভোরে ও সারাদিনের থেমে থেমে ভারিবর্ষণে প্রায় ৫শ' কৃষকের ৪৮৪কর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মাওহা ইউনিয়নের বাউশালী বিলের কৃষকরা তাদের জমির ফসল রক্ষায় স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁধ নির্মাণ শুরু করেছে।

কৃষকরা জানান, সুরিয়া নদীতে খনন না করায় তলিয়ে যাচ্ছে তাদের স্বপ্নের ফসল। শংকিত কৃষক আধাপাকা ধানই কেটে নিচ্ছেন।

উপজেলার রামগোপালপুর ইউনিয়নের বলেশ্বর, কৈট্রাপুরি, শ্রীধরপুর, অচিন্তপুর ইউনিয়ের চাতুল আগ্রাইলবিল, সুরিয়া, গৌরীপুরের বালকি, ডৌহাখলার মরিচালি, সিধলার সিধলং, মাওহা ইউনিয়নের বাউশালী, নয়নগর, সুরিয়াসহ বিভিন্ন বিলে বর্ষণে প্রতিদিনেই বোরো ফসলের জমি তলিয়ে যাচ্ছে।

রামগোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম মাস্টার জানান, এ ইউনিয়নে অতিবর্ষণে প্রায় ১০৫ একর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মাওহা ইউনিয়নের আজহারুল ইসলাম জানান, এ ইউনিয়নের প্রায় ৬৫জন কৃষকের ধান পানির নিচে তলিয়ে গেছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল ইসলাম জানান, এ পর্যন্ত উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের তথ্যমতে তলিয়ে যাওয়া বোরো ফসলের জমি ৯৬ একর। উজানের পানিতে নেতিয়ে বাতাসে ভেঙে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ২৮৩একর বোর ফসলের মাঠ।  

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ সাদিকুর রহমান বলেন, এ উপজেলায় এবার ২০ হাজার ৯শ হেক্টর জমিতে বোর ধান আবাদ হয়েছে। এরমধ্যে ১৩হাজার হেক্টর জমিতে ব্রিধান ২৮জাতের রোপন করা হয়। যা এ সপ্তাহের মাঝেই কাটা শুরু হবে। কিছু জমির ধান কাটাও শেষ। যেসব ফসলের ৮০শতাংশ ধান পাকা সেসব জমির ধান কাটতে কৃষকদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর
সারা দেশ বিভাগের অারও খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by