•       কোনো দলকে নির্বাচনে আনতে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করবে না নির্বাচন কমিশন: সিইসি
কক্সবাজার প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১৯ মে, ২০১৭ ১৯:৪৮:৪৫
অবরুদ্ধ ডিবি পুলিশকে উদ্ধার করল থানা পুলিশ
কক্সবাজারের টেকনাফে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি দল অভিযান চালাতে গিয়ে স্থানীয় জনতার হাতে অবরুদ্ধ হয়েছেন। তিন ঘণ্টা অবরুদ্ধ থাকার পর থানা পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নাজিরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

এসময় ডিবি পুলিশের মাইক্রোবাসটি ভাংচুর করে বিক্ষুব্ধ জনতা। ওই ঘটনায় পুলিশের পাঁচজন সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবি করে ডিবি পুলিশ।

ঘটনার জড়িত সন্দেহে শামসুল আলম নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ। তিনি নাজির পাড়ার বাসিন্দা আবদুল হাকিমের ছেলে।

এ প্রসঙ্গে কক্সবাজার জেলা ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সুমন মিয়া বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নাজিরপাড়া এক বাড়িতে (মাদক) ইয়াবা বেচাকেনা হচ্ছে- এমন গোপন সংবাদ পেয়ে তার নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি দল ওই বাড়িতে অভিযান চালায়।

পরে জানতে পারি, যে বাড়িতে অভিযান চালানো হচ্ছে ওই বাড়ির মালিক সদর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য এনামুল হক। এরপর বাড়ি ভেতর থেকে শোর-চিৎকার করলে লোকজন জড়ো হয়ে আমাদের ঘিরে রাখে। তাদের অনেক অনুরোধ করার পরও সরেনি, বলেন তিনি।

এই ডিবি কর্মকর্তা বলেন, এসময় লাঠি, ছুরি, লম্বা লোহার রড ও অস্ত্র দিয়ে মাইক্রোবাসটি ভেঙে দেন ইউপি সদস্যের লোকজন। পরে থানা পুলিশের সহযোগিতায় অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে আমরা মুক্ত হয়ে ফিরে আসি।

এ ঘটনায় মাইক্রোবাসের চালকসহ ডিবি পুলিশের পাচঁজন সদস্য আহত হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

আহতরা হলেন- এসআই মো. ফিরোজ, আসাদ্দুজামান, কনস্টেবল আল আমিন, সুমাইয়া সুলতানা ও গাড়িচালক আবুল ফজল বাপ্পি। তাদেরকে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এসআই সুমন মিয়া আরও বলেন, এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে নয়জনকে এজাহারভুক্ত ও আরও অজ্ঞাত ১৫০ জনকে আসামি করে একটি মামলা রুজু করেছেন। এক আসামি আটক রয়েছেন।

ইউপি সদস্য এনামুল হক অভিযোগ করেন, 'গত ইউপি নির্বাচনে কারাগার থেকে আমি বিপুল ভোটে সদস্য নির্বাচিত হয়। আমি কোনো ধরনের মাদক ব্যবসায় জড়িত নই। কিন্তু ডিবি পুলিশ মাদকের নাম দিয়ে আমার বাড়িতে ডুকে কোনো কথা ছাড়াই আমার হাতে হাতকড়া পরিয়ে দেন।'

তিনি বলেন, 'আমার অপরাধ কি- প্রশ্ন করা হলে তারা বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আপনাকে নিয়ে যেতে বলেছেন। পরক্ষণে এসআই সুমন মিয়া অন্য সদস্যদের বলেন, গাড়ি থেকে ইয়াবাগুলো নিয়ে আস।'

এনামুল বলেন, 'তারা (ডিবি) আমাকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করেছিল বুঝতে পেরে পরিবারের লোকজন শোর-চিৎকার করে। তা শুনে প্রতিবেশী লোকজন এগিয়ে এলে জনতার বাধার মুখে আমাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় ডিবি পুলিশ।'

তিনি আরও দাবি করেন, 'আমাকে ফাঁসানোর জন্য আমার প্রতিপক্ষ লোকজন ডিবি পুলিশের মাইক্রোবাসটি ভাংচুর করেছেন।'

এ প্রসঙ্গে টেকনাফ মডেল থানার ওসি মো. মাইন উদ্দিন খাঁন বলেন, গোয়েন্দা পুলিশের কয়েক সদস্যকে অবরুদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় একটি মামলা রুজু হয়েছে।
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর
সারা দেশ বিভাগের অারও খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by