•       ধর্ষণের অভিযোগে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া থানার ওসিসহ তিন পুলিশের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা
অনলাইন ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ১৪ মার্চ, ২০১৭ ১৩:০৪:৩০ | অাপডেট: ১৪ মার্চ, ২০১৭ ১৩:০৯:০০
হারনিয়া হলে

হারনিয়া হল পেটের মধ্যস্থ খাদ্যনালী বা অন্য যে কোনো অঙ্গ পেটের দুর্বল স্থান দিয়ে বাইরে চলে আসাকে বোঝায়। হারনিয়া একটি সাধারণ রোগ। জন্ম থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়স পর্যন্ত যে কারো এই রোগ হতে পারে।
 
সবচেয়ে কমন যে হারনিয়া হলো ইনগুইনাল হারনিয়া এবং ইনসিসনাল হারনিয়া বা অপারেশনের জায়গায় হারনিয়া। তবে ইনগুইনাল হারনিয়াই বেশি হয়ে থাকে।
 
কুচকির মাঝামাঝি ১/২ ইঞ্চি উপরে এই হারনিয়ার প্রাথমিক অবস্থান। এ রোগে আক্রান্ত বেশিভাগ রোগীই থাকেন পুরুষ।
 
কারণ: হারনিয়া একটি সার্জিক্যাল রোগ অর্থাৎ অপারেশন ছাড়া এ রোগ ভালো  হয় না। পেট বা এবডোমেন ওয়ালের দুর্বলতাই হারনিয়া রোগের কারণ। তবে দুর্বলতা বিভিন্ন কারণে হতে পারে  যেমন:  জন্মগত, অপারেশন, আঘাত এবং ইনফেকশন ইত্যাদি।
 
উপসর্গ: 
 
* হাঁটা-চলা করলে, ভারী বস্তু উঠালে কিংবা হাঁচি-কাশি দিলে কুচকির ওপরটা গোলাকার বলের মতো ফুলে ওঠে এবং শুয়ে থাকলে এটা চলে যায়।
 
* মাঝে মাঝে শক্ত হয়ে যায় এবং ব্যথা হয়। কিছুদিন এভাবে চলার পর গোলাকার ফোলাটি ইসক্রুটামে (অণ্ডকোষ থলিতে) নেমে আসে এবং শুয়ে থাকলে আপনা আপনি পেটের ভেতর শব্দ করে চলে যায়।
 
* প্রচণ্ড ব্যথা, বমি এবং পেট ফাঁপা ও পায়খানা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এই অবস্থাকে ইনটেন্সিটিনাল বা খাদ্যনালীর অবস্ট্রাকশন বলা হয়। এই অবস্থায় জরুরি অপারেশনের প্রয়োজন হয়।
 
* ফোলা অংশটি বড় হতে থাকে এবং মাঝে মাঝে চাপ দিয়ে ভেতরে ঢোকাতে হয়। তারপর ধীরে ধীরে চাপ দিলেও পেটের ভেতরে ঢোকে না। 
 
চিকিৎসা: এ রোগের একমাত্র চিকিৎসা অপারেশনই। প্রাথমিক পর্যায়ে অপারেশন করাই ভালো।
 
ডা. মো. শাহরিয়ার, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শের-ই-বাংলা নগর, ঢাকা।

  • সর্বশেষ খবর
ডাক্তার আছেন বিভাগের অারও খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by