অনলাইন ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল, ২০১৭ ১০:১০:৩৩ | অাপডেট: ১৮ এপ্রিল, ২০১৭ ১২:৪২:১১
মিষ্টি ফলেও কমে ডায়াবেটিস!

ডায়াবেটিক রোগীরা কি ফল খেতে পারবেন- এমন প্রশ্ন অনেকের মনেই আসে।
 
বেশিরভাগ ফল মিষ্টি। আর ডায়াবেটিসের প্রধান শত্রু মিষ্টি। চিকিৎসকরাও মিষ্টি খেতে নিষেধ করে থাকেন। তাহলে প্রশ্ন থেকেই যায়- জায়াবেটিসে আক্রান্তরা কি মিষ্টি জাতীয় ফল খেতে পারবেন?
 
ডায়াবেটিস রোগীরা মিষ্টি ফল খেতে পারবেন না এ ধারণাটা একেবারেই ঠিক নয়। বরং প্রতিদিন এক বাটি করে ফল খেলে ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশংকা প্রায় ১২ শতাংশ কমে যাবে বলে মনে করেন গবেষকরা।
 
একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা ইতিমধ্যে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়েছেন, তারাও যদি সপ্তাহে তিন দিন নিয়ম করে ফল খান, তাহলে এ রোগ নিয়ে জটিলতা অনেকাংশেই হ্রাস পায়।
 
সেই সঙ্গে ডায়াবেটিসের কারণে আরও যে সব রোগ হওয়ার আশংকা থাকে তাও প্রতিরোধ হয়।
 
সম্প্রতি এ বিষয়ে প্রায় ৫ লাখ মানুষের ওপর একটি গবেষণা চলানো হয়েছে। এতে দেখা গেছে, যেসব ডায়াবেটিক রোগী নিয়মিত ফল খান, তাদের ডায়াবেটিস সম্পর্কিত নানাবিধ শারীরিক জটিলতার আশংকা প্রায় ০.২ শতাংশ হ্রাস পায়।
 
শুধু তাই নয়, তাজা ফল খেলে ডায়াবেটিসের কারণে মৃত্যু আশংকাও প্রায় ১.৯ শতাংশ কমে। সেই সঙ্গে কমে মাইক্রোভাসকুলারের জটিলতা।
 
অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ হুয়াইডং ডু বলেন, নিয়মিত ফল খাওয়ার অভ্যাস করলে ডায়াবেটিস রোগীদের ইসকেমিক হার্ট ডিজিজ, স্ট্রোক, কিডনি ডিজিজ প্রভৃতি রোগ হওয়ার আশংকা প্রায় ১৩-২৮ শতাংশ হ্রাস পায়। তাই তো ডায়াবেটিসদের প্রতিদিন ফল খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।
 
তাই ডায়াবেটিস রোগীরা নিশ্চিন্তে ফল খেতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে কী কী ফল খাওয়া চলবে, কী কী চলবে না, সে সম্পর্কে চিকিৎসকের সঙ্গে আলোচনা করে নেয়াটাই ভালো।

  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by