প্রকাশ : ১৩ আগস্ট, ২০১৭ ০৪:৩৭:৩৫
সমর্থকদের প্রতি নওয়াজ
আপনারা কি বিপ্লবের জন্য প্রস্তুত?
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ তার সমর্থকদের প্রতি প্রশ্ন রেখে বলেছেন, পাকিস্তানে আরেকটা বিপ্লব দরকার। আপনরা কি বিপ্লবের জন্য প্রস্তুত আছেন- নিজের ‘বাড়িফেরা’ র‌্যালি কর্মসূচির চতুর্থ ও শেষ দিন শনিবার এক জনসমাবেশে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। ৯ আগস্ট রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে এ র‌্যালি কর্মসূচি শুরু হয়। ২৮ জুলাই সুপ্রিমকোর্টের রায়ে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর নতুন করে নিজের শক্তি প্রদর্শন করতে এ ‘ঘরেফেরা’ কর্মসূচির ঘোষণা দেন। ডন জানায়, নিজের জন্মস্থান লাহোরের উদ্দেশে রওনা হওয়ার আগে মুরিদেকে নামক স্থানের তিনি বক্তব্য দেন।

নিজের বক্তব্যে সুপ্রিমকোর্টের রায়ের সমালোচনা করেছেন নওয়াজ। পাঞ্জাবের মুরিদকে শহরে হাজার হাজার সমর্থককে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আপনারা হতাশ হবেন না। কোনো চিন্তা করবেন না। এটা আপনাদেরই বিজয়। তাদেরই পরাজয় হয়েছে, যারা এ জাতিকে গত ৭০ বছর ধরে জিম্মি করে রেখেছে।

তিনি আরও বলেন, এ দেশের ২০ কোটি মানুষ এ দেশের প্রকৃত মালিক। মুষ্টিমেয় কয়েকজন তাদের ওপর খবরদারি করতে পারে না। আমরা এ ২০ কোটি জনগণকে এদেশের প্রকৃত মালিক বানাব। নওয়াজ শরিফ আপনাদের কাছে এসেছে। তিনি প্রশ্ন রাখেন, আপনারা কি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করে নওয়াজকে ইসলামাবাদ পাঠাননি? কিন্তু মাত্র কয়েকজনের মাধ্যমে তিনি বিতাড়িত হয়েছেন। এই সিদ্ধান্ত কি আপনাদের কাছে গ্রহণযোগ্য? পাকিস্তান ২০ কোটি মানুষের। নওয়াজ শরিফ যদি কোনো দুর্নীতি করতেন, তাহলে আপনারা নিজেরাই আমাকে ক্ষমতাচ্যুত করতে পারতেন। কিন্তু সে সিদ্ধান্ত আপনাদের নিতে দেয়া হয়নি।

তিনি আরও বলেন, আমার বিরুদ্ধে কোনো দুর্নীতির অভিযোগ নেই। মুরিদকের জনগণ, আপনাকে বলুন, ‘সুপ্রিম কোর্টের এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। এটা কি আপনাদের প্রতি অপমান নয়।’

এরপর তিনি বলেন, একটা বিপ্লব কি হওয়া উচিত নয়। আপনারা কি বিপ্লবের জন্য প্রস্তুত আছেন? এর আগে রাওয়ালপিন্ডিতে এক সমাবেশে তিনি তার সমর্থকদের প্রতি দেশের গণতন্ত্র উদ্ধারে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

নওয়াজ বলেন, নিজের শাসনের সময়সীমা শেষ হওয়ার আগেই তাকে ক্ষমতাচ্যুত হতে হয়েছে। পাকিস্তানে গত ৭০ বছর ধরেই চলে আসছে এই ইতিহাস।

তার ক্ষোভ, পাক প্রধানমন্ত্রীরা কখনও নিজেদের শাসনের সময়সীমা পূরণ করে উঠতে পারেননি। প্রায় প্রত্যেক প্রধানমন্ত্রীই গড়ে দেড় বছর ক্ষমতায় থাকার সুযোগ পেয়েছেন। অনেককে জেলবন্দি হতে হয়েছে। কাউকে কাউকে তো ফাঁসিও দেয়া হয়েছে। অনেককে দ্বীপান্তরে পাঠানো হয়েছে।

গণতন্ত্রকে বাঁচানোর জন্য মানুষের কাছে আর্জি জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিজ্ঞা করুন, নিজেদের প্রধানমন্ত্রীকে এভাবে অপমানিত হতে দেবেন না।
 
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর
আন্তর্জাতিক বিভাগের অারও খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by