অনলাইন ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল, ২০১৭ ১০:১২:৪৭ | অাপডেট: ১৬ এপ্রিল, ২০১৭ ১০:৩৯:২০
রাতের স্বপ্ন কেন মনে থাকে না?

রাতে চোখে ঘুম আসার পরই আমরা আর এ পৃথিবীতে থাকি না। পাড়ি জমাই দূর কোনো দেশে। যেখানে সবকিছুই বেশ সুন্দর, নয়তো খুবই ভয়ংকর।
 
এ দ্বিতীয় দুনিয়ায় প্রবেশের ছাড়পত্র আমরা পাই কোথা থেকে? এই আজব জগতের সন্ধান রয়েছে কি আমাদের মনের মধ্যে? নাকি এ সবই আমাদের মস্তিষ্কের খেলা? এমন হাজারো প্রশ্ন ভিড় করে আসে প্রতিদিন সকালে।
 
ঘুম থেকে জেগে রাতের স্বপ্নের কথা কিছুতেই মনে করা যায় না। মাত্র কয়েকজনই স্বপ্নে কথা বলতে পারেন। সেটাও খুব হালকা বা অস্পষ্টভাবে। সম্পূণটা কেউই পুরোপুরি বলতে পারেন না।
 
প্রথমদিকে বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞই মনে করতেন, আমরা যখন গভীর ঘুমে থাকি, তখন অনবরত আমাদের চোখ নড়তে থাকে। এ সময়ই আমরা মূলত স্বপ্ন দেখি। এমন চোখের মুভমেন্টকে ‘আর ই এম’ বলে। বেশিরভাগ স্বপ্ন আমরা এ সময় দেখি।
 
পরবর্তীকালে একাধিক কেস স্টাডি করে এ ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। দেখা গেছে, ঘুমানোর সময় কোনো বিশেষ মুহূর্তে নয় বরং যেকোনো স্টেজেই আমরা স্বপ্ন দেখতে পারি।
 
স্বপ্নের এক আজব দুনিয়া! রাতে দেখা স্বপ্ন কেন সকালে ভুলে যাই? বহুকাল থেকেই বিজ্ঞানিরা এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজে চলছেন, তবে আজ পর্যন্ত এ প্রশ্নের কোনো উত্তর সঠিকভাবে প্রমাণিত হয়নি।
 
তবে কিছু সংখ্যক বিজ্ঞানী মনে করেন, আমারা যখন খুব সমস্যার মধ্যে থাকি তখন আমাদের মস্তিষ্ক কোনো এক আজানা প্রক্রিয়ায় সেইসব সমস্যার সমাধান খুঁজতে থাকে। আর তখনই আমরা স্বপ্ন দেখি।
 
যদিও আরেক দলের মতে স্বপ্ন আর কিছুই নয়, শরীরের একটি প্রক্রিয়া মাত্র। তবে একথা ঠিক যে আমরা সবাই স্বপ্ন দেখি। তবে আমাদের ঘুম কেমন হচ্ছে, তার ওপর নির্ভর করে আমরা স্বপ্ন মনে রাখতে পারবো কিনা।
 
আসলে স্বপ্ন দেখতে দেখতে আমাদের বেশিরভাগেরই ঘুম ভেঙে যায় অথবা ঘুমের গভীরতা অতটা থাকে না। তাই তো আমাদের স্বপ্নের কিছুটা মনে থাকে, পুরোটা নয়। 
 
এ মতটি বেশিরভাগই মেনে নিয়েছেন ঠিকই। কিন্তু এই যুক্তির সপক্ষে তেমনভাবে কোনো প্রমাণ মেলেনি আজও।

  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by