যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ২০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০:০০ | অাপডেট: ২০ মার্চ, ২০১৭ ০৫:০৪:৩২
বিজেপির ‘মুসলিমবিরোধী মুখোশ উন্মোচিত’
উত্তরপ্রদেশে মুখ্যমন্ত্রীর পদে কট্টরপন্থী আদিত্যনাথের শপথ
কট্টরপন্থী হিন্দু নেতা যোগী আদিত্যনাথকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পদে বসালেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রোববার তিনি শপথ নিয়েছেন। দেশটির সর্ববৃহৎ জনসংখ্যার এ রাজ্যে আদিত্যনাথের নিয়োগে দেখা দিয়েছে বিতর্ক। বিতর্কের নেপথ্যে তার অতীত কর্মকাণ্ড। কেননা হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠায় তিনি বরাবরই চরম মুসলিমবিদ্বেষী মনোভাব দেখিয়ে এসেছেন। মোদির এ পছন্দে বিজেপির মুসলিমবিরোধী নীতির মুখোশ উন্মোচিত হয়েছে বলে মন্তব্য সমালোচকদের। এছাড়া এতে ভারতে বিভাজনের রাজনীতির বিকাশ ঘটবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। খবর এনডিটিভি ও দ্য হিন্দুর।

উত্তরপ্রদেশ রাজ্যটিতে প্রায় ২০ কোটি লোকের বাস। রাজ্যটিকে ভারতীয় রাজনীতির ‘কেন্দ্রীয় মঞ্চ’ হিসেবে মনে করা হয়। বলা হয়ে থাকে, উত্তরপ্রদেশে যে রাজনৈতিক দল জয়লাভ করে, দিল্লি তার দখলে আসে। বিধানসভা নির্বাচনে এ রাজ্যে কোনো মুসলিম প্রার্থী দেয়নি বিজেপি। উত্তরপ্রদেশের মোট জনসংখ্যার ১৮ শতাংশ মুসলিম। এ ছাড়া ২৫ বছরের ইতিহাসে এবারের বিধানসভা নির্বাচনে সর্বনিন্ম ২৫ জন মুসলিম বিধায়ক রয়েছে। এবার উগ্রবাদী হিন্দু পুরোহিতকে মুখ্যমন্ত্রী বানিয়ে বিজেপির মুসলিমবিদ্বেষী মুখোশ উন্মোচিত হল। ৪৪ বছর বয়সী সাধু আদিত্যনাথ স্থানীয় গোরখপুর আসন থেকে বিজেপির পাঁচবারের নির্বাচিত বিধায়ক। মুসলিমবিরোধী মন্তব্য করে আলোচনায় এসেছেন তিনি। এবারের নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি বলেন, ‘রাজ্যে সমাজবাদী পার্টি শুধু কবরস্থানগুলোর উন্নয়ন করেছে কিন্তু বিজেপি সরকার এলে রামমন্দির প্রতিষ্ঠা করা হবে।’

আদিত্যনাথ গো-রক্ষা আন্দোলনের কট্টর সমর্থক। এমনকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুসলিম অভিবাসীবিরোধী নীতির মতো ভারতেও একই পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি করেছেন। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশের ৪০৩টি আসনের মধ্যে বিজেপির দখলে গেছে ৩১২টি। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা রাজ্যে বিজেপি সরকারকে শক্তিশালী করবে সন্দেহ নেই। অসীম ক্ষমতা পাবেন আদিত্যনাথ। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী পদে তার এ নিয়োগ রাজ্যের সংখ্যালঘু মুসলিমদের আরও প্রান্তিক অবস্থানে নিয়ে যেতে পারে। নির্বাচনী প্রচারণায় মোদি উত্তরপ্রদেশের উন্নয়নের (ভিকাশ) প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। এনডিটিভি জানায়, মোদির সেই ভিকাশ কি আদিত্যনাথকে ক্ষমতায় বসানো? উন্নয়নের জন্য বিদ্যুৎ, রাস্তাঘাট ও পানি সংকট নিরসনের কথা বলেছিলেন মোদি। এখন তিনি ‘মন্দির রাজনীতি’ নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন।


 
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর
দশ দিগন্ত বিভাগের অারও খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by