কুলিয়ারচরে দুই জ্ঞানীকে স্মরণ করল স্বজনরা
jugantor
কুলিয়ারচরে দুই জ্ঞানীকে স্মরণ করল স্বজনরা

  মোহাম্মদ আরীফুল ইসলাম  

১৬ আগস্ট ২০২০, ২২:০৮:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

গত ৯ আগস্ট বিকালে যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম ও ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অবিসংবাদী নেতা মহারাজ ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তীকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করল যুগান্তর স্বজন সমাবেশের কুলিয়ারচর উপজেলার স্বজনরা।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৭৪ বছর বয়সে মারা যান যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাতা নুরুল ইসলাম।

মেধা, দক্ষতা, পরিশ্রম ও সাহসিকতার মাধ্যমে একে একে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন ৩৮টি প্রতিষ্ঠান। তার মাঝে দৈনিক যুগান্তর এবং যমুনা টেলিভিশনও রয়েছে।

অন্যদিকে মহারাজ ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তী ১৮৮৯ সালে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার কাপাসাটিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ বিপ্লবী।

স্বদেশী আন্দোলনের পক্ষে থাকায় বিভিন্ন সময় দীর্ঘ ৩০ বছর কারাবরণ করেন তিনি। ১৯৭০ সালের ৯ আগস্ট ভারতের দিল্লিতে পরলোক গমন করেন এ নেতা। তার স্মৃতির স্মরণে থাকা একমাত্র পাবলিক লাইব্রেরিটিও পড়ে আছে জরাজীর্ণ আর পাঠক শূন্য হয়ে।

অলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুগান্তর কুলিয়ারচর উপজেলা প্রতিনিধি ও স্বজন সমাবেশের প্রধান উপদেষ্টা মোহাম্মদ আরীফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার শাহীন, অর্থ সম্পাদক অজয় দাস, সদস্য তানভীর আহমেদ, দাস রেডিয়োর স্বত্বাধিকারী নর উত্তম দাস, মো. মানিক, নয়ন ইসলাম, অঙ্কিতা মজুমদার তৃষা প্রমুখ।

কুলিয়ারচরে দুই জ্ঞানীকে স্মরণ করল স্বজনরা

 মোহাম্মদ আরীফুল ইসলাম 
১৬ আগস্ট ২০২০, ১০:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গত ৯ আগস্ট বিকালে যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম ও ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অবিসংবাদী নেতা মহারাজ ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তীকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করল যুগান্তর স্বজন সমাবেশের কুলিয়ারচর উপজেলার স্বজনরা।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৭৪ বছর বয়সে মারা যান যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাতা নুরুল ইসলাম। 

মেধা, দক্ষতা, পরিশ্রম ও সাহসিকতার মাধ্যমে একে একে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন ৩৮টি প্রতিষ্ঠান। তার মাঝে দৈনিক যুগান্তর এবং যমুনা টেলিভিশনও রয়েছে।

অন্যদিকে মহারাজ ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তী ১৮৮৯ সালে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার কাপাসাটিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ বিপ্লবী। 

স্বদেশী আন্দোলনের পক্ষে থাকায় বিভিন্ন সময় দীর্ঘ ৩০ বছর কারাবরণ করেন তিনি। ১৯৭০ সালের ৯ আগস্ট ভারতের দিল্লিতে পরলোক গমন করেন এ নেতা। তার স্মৃতির স্মরণে থাকা একমাত্র পাবলিক লাইব্রেরিটিও পড়ে আছে জরাজীর্ণ আর পাঠক শূন্য হয়ে।

অলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুগান্তর কুলিয়ারচর উপজেলা প্রতিনিধি ও স্বজন সমাবেশের প্রধান উপদেষ্টা মোহাম্মদ আরীফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার শাহীন, অর্থ সম্পাদক অজয় দাস, সদস্য তানভীর আহমেদ, দাস রেডিয়োর স্বত্বাধিকারী নর উত্তম দাস, মো. মানিক, নয়ন ইসলাম, অঙ্কিতা মজুমদার তৃষা প্রমুখ।