আনন্দনগর প্রতিবেদক    |    
প্রকাশ : ২০ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
দর্শক চাইলেই পরিচালনায় নিয়মিত হব
আলমগীর

চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তি অভিনেতা আলমগীর। একই সঙ্গে তিনি কাহিনীকার, প্রযোজক ও পরিচালক। দীর্ঘদিন পর ‘একটি সিনেমার গল্প’ নামের একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন। ১০ অক্টোবর থেকে বিএফডিসিতে চলচ্চিত্রটির দ্বিতীয় লটের শুটিং শুরু হয়েছে। এতে আলমগীর নিজেও অভিনয় করছেন। অন্যদের মধ্যে আছেন চম্পা, ঋতুপর্ণা, আরিফিন শুভ’সহ আরও অনেকে। এরই মধ্যে আলমগীরের পরিচালনায় এ চলচ্চিত্রটি নিয়ে চিত্রপুরিতে বেশ আলোচনা তৈরি হয়েছে। এর কয়েকটি কারণও রয়েছে। প্রথমত, দীর্ঘদিন পর আলমগীর নিজেই পরিচালনায় এসেছেন। এ ছাড়াও এ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর আবারও ঢাকার ছবিতে অভিনয় করছেন কলকাতার অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা, এই চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়েই সুরকার এবং সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে অভিষেক হয়েছে রুনা লায়লার। চলচ্চিত্রটি আলমগীরের নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা ‘আইকন এন্টারটেইনম্যান্ট’র ব্যানারে নির্মিত হচ্ছে। দীর্ঘদিন পর চলচ্চিত্র নির্মাণ প্রসঙ্গে আলমগীর বলেন, ‘বেশ কয়েকবছর যাবত মনের ভেতর একটি গল্প ঘুরপাক খাচ্ছিল। সেই গল্পটিই নিজের মতো করেই লিখে ফেললাম। প্রতিটি সংলাপের সঙ্গে আমার আবেগ ভীষণভাবে জড়িত। যে কারণে এ চলচ্চিত্রটি নিয়ে আমার স্বপ্নও ছিল অনেক। অবশেষে নির্মাণ শুরু করেছি। প্রত্যেকেই যার যার অবস্থানে থেকে বেশ ভালো অভিনয় করছেন। বিশেষ করে ঋতুপর্ণা অসাধারণ একজন ম্যাচিউরড আর্টিস্ট। কিছু কিছু দৃশ্যে আমার প্রত্যাশার বাইরে অনেক ভালো অভিনয় করছে। এতটা ভালো অভিনয় করবে আমি ভাবতেও পারিনি। এতে ঋতু কবিতা নামে একটি চরিত্রে অভিনয় করছে। চরিত্রটিতে সে এতটাই মিশে গেছে যে, ঋতু আর ঋতু নেই, যেন কবিতাই হয়ে গেছে।’ এখন থেকে কী চলচ্চিত্র নির্মাণে নিয়মিত হবেন- এমন প্রশ্নের জবাবে আলমগীর বলেন, ‘যদি দর্শক চায় তাহলে অবশ্যই নিয়মিত হব। আগে শুটিং শেষ হোক, চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাক। দর্শক হলে গিয়ে চলচ্চিত্রটি সম্পর্কে তাদের মতামত জানালে নির্মাতা হিসেবে আমি ভীষণ খুশি হব। আমি দর্শকের জন্যই চলচ্চিত্রটি তৈরি করছি।’ উল্লেখ্য, চিত্রনায়ক আলমগীর ১৯৮৬ সালে ‘নিষ্পাপ’ চলচ্চিত্র নির্মাণের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত