আনন্দনগর প্রতিবেদক    |    
প্রকাশ : ২০ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
ফেসবুকে স্বামীর পরকীয়ার প্রমাণ দিলেন মিলা

স্বামী বৈমানিক পারভেজ সানজারির বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগ এনে বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটিয়ে যৌতুক ও নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন সঙ্গীতশিল্পী মিলা। এ মামলায় বর্তমানে জেলহাজতে আছেন পারভেজ। কিন্তু পারভেজের পরিবারের পক্ষ থেকে এসব অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করা হয়। এবার নিজের অভিযোগের প্রমাণ দিলেন মিলা। তিনি তার ফেসবুক পেজে স্বামীর ফেসবুক চ্যাটিংয়ের স্ক্রিন শট প্রকাশের মাধ্যমে বিষয়টি স্পষ্ট করেছেন। প্রায় ৮৬টি স্ত্রিন শট তিনি ফেসবুকে দিয়েছেন। সে সঙ্গে তার স্বামীর সঙ্গে মোবাইলে যে কথোপকথন হয়েছে সেসব কথা রেকর্ডিং করে ও স্ক্রিন শট দিয়ে একটি ভিডিও আপলোড করেন। ৭ মিনিটের সে ভিডিওর কথোপকথনের পাশাপাশি মিলা ওই ভিডিওর একটি ক্যাপশনও দিয়েছেন। যেখানে লিখেছেন, ‘আমার বিয়ের ১৮তম দিনে কথা-বার্তা বলতে গিয়ে আমার স্বামী অন্য অনেক নারীর সঙ্গে তার পরকীয়ার ব্যাপারে ধরা খেয়ে যায়। কেন আমি ১০ বছরেও তার এই বিষয়টা জানতে পারলাম না? ভালো, স্বামীর অনেক বিষয় আছে যা স্ত্রী একদিনে বুঝে ফেলতে পারে। কিন্তু একজন প্রেমিকা সেটা ১০০ বছরেও বুঝতে পারে না। আমার স্বামী যখন দেশের বাইরে যায়, আমি আমার মেইল চেক করার জন্য তার কম্পিউটার চালু করি। আমি দেখতে পাই আমার স্বামীর ফেসবুক লগ ইন করা। যার এক্সেস ও (পারভেজ) আমাকে কোনোদিন দেয়নি। এমনকি আমি তার ফ্রেন্ড লিস্টেও ছিলাম না। কারণ সে প্রাইভেসি মেইন্টেইন করতে চাইত। যখন আমি তার সম্পর্কে ভয়ঙ্কর সব তথ্য পাই, হ্যাঁ, এই ১৩ দিনে আমি তার সম্পর্কে যা জানতে পারলাম, সেটা ১০ বছরেও জানতে পারিনি। আশা করি আপনারা এখন সব বুঝতে পেরেছেন!’ প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ১০ বছরের প্রেমের পর চলতি বছরের ১২ মে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়েছিল মিলা ও পারভেজের। পারভেজ সানজারি বর্তমানে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সে বৈমানিক হিসেবে কর্মরত। এর আগে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ফাইটার পাইলট হিসেবে কাজ করেছেন তিনি।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত