বিল গেটসের সঙ্গে একদিন
jugantor
বিল গেটসের সঙ্গে একদিন

  আশরাফুল আলম পিনটু  

০৩ নভেম্বর ২০২০, ২২:১২:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

দিন কয়েক আগের ঘটনা।

সিয়াটল বিমানবন্দর। ভিআইপি লাউঞ্জে বসেছিলেন এক লোক। নাম তার টম। হঠাৎ দেখতে পেলেন, এক কোণায় বসে আছেন বিল গেটস। আয়েশ করে কোমল পানীয় পান করছেন। একজন ক্লায়েন্টের জন্য টম সেখানে অপেক্ষা করছিলেন। তিনি বিমানে সিয়াটলে আসবেন। গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক মিটিং; কিন্তু তার ফ্লাইট পৌঁছতে সামান্য দেরি হচ্ছে।

টম সোজা গিয়ে দাঁড়ালেন মাইক্রোসফটের সাবেক চেয়ারম্যানের সামনে। নিজের পরিচয় দিয়ে বললেন, ‘মিস্টার গেটস, আপনি আমার একটা উপকার করলে চিরকৃতজ্ঞ থাকব।’

‘হ্যাঁ বলুন, কী উপকার করতে পারি?’ বিল গেটস জানতে চাইলেন।

‘আমি ওইখানে বসে এক গুরুত্বপূর্ণ ক্লায়েন্টের জন্য অপেক্ষা করছি।’ টম তার বসার জায়গা দেখিয়ে বললেন, ‘তিনি আমার কাছে এসে পৌঁছলে আপনাকে একটা কাজ করতে হবে।

বিল গেটস : বলুন, কী কাজ?

টম : দয়া করে আপনি তখন কাছে এসে শুধু আমাকে ডেকে বলবেন- হাই টম। এটুকু হলেই চলবে।’
‘নিশ্চয়ই ডাকব।’ বিল গেটস রাজি হয়ে প্রশ্রয়ের হাসি হাসলেন।
তার সঙ্গে হাত মিলিয়ে নিজের জায়গায় ফিরে গেলেন টম।

দশ মিনিট পর সেই ক্লায়েন্ট এলেন। কোমল পানীয়ের অর্ডার দিলেন টম। তার সঙ্গে ব্যবসায়িক আলাপ শুরু করলেন।
মিনিট দুয়েক পর কাঁধে মৃদু টোকা অনুভব করলেন টম। ঘুরে দেখলেন, বিল গেটস দাঁড়িয়ে আছেন। তিনি হাসিমুখে বললেন, ‘হাই টম।’
টম বিরক্তির সুরে বললেন, ‘জ্বালিয়ো না, বিল! এখন যাও। দেখছ না, আমি একটা গুরুত্বপূর্ণ মিটিংয়ে আছি!’

বিল গেটসের সঙ্গে একদিন

 আশরাফুল আলম পিনটু 
০৩ নভেম্বর ২০২০, ১০:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দিন কয়েক আগের ঘটনা।

সিয়াটল বিমানবন্দর। ভিআইপি লাউঞ্জে বসেছিলেন এক লোক। নাম তার টম। হঠাৎ দেখতে পেলেন, এক কোণায় বসে আছেন বিল গেটস। আয়েশ করে কোমল পানীয় পান করছেন। একজন ক্লায়েন্টের জন্য টম সেখানে অপেক্ষা করছিলেন। তিনি বিমানে সিয়াটলে আসবেন। গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক মিটিং; কিন্তু তার ফ্লাইট পৌঁছতে সামান্য দেরি হচ্ছে। 

টম সোজা গিয়ে দাঁড়ালেন মাইক্রোসফটের সাবেক চেয়ারম্যানের সামনে। নিজের পরিচয় দিয়ে বললেন, ‘মিস্টার গেটস, আপনি আমার একটা উপকার করলে চিরকৃতজ্ঞ থাকব।’

‘হ্যাঁ বলুন, কী উপকার করতে পারি?’ বিল গেটস জানতে চাইলেন। 

‘আমি ওইখানে বসে এক গুরুত্বপূর্ণ ক্লায়েন্টের জন্য অপেক্ষা করছি।’ টম তার বসার জায়গা দেখিয়ে বললেন, ‘তিনি আমার কাছে এসে পৌঁছলে আপনাকে একটা কাজ করতে হবে। 

বিল গেটস : বলুন, কী কাজ? 

টম : দয়া করে আপনি তখন কাছে এসে শুধু আমাকে ডেকে বলবেন- হাই টম। এটুকু হলেই চলবে।’ 
‘নিশ্চয়ই ডাকব।’ বিল গেটস রাজি হয়ে প্রশ্রয়ের হাসি হাসলেন। 
তার সঙ্গে হাত মিলিয়ে নিজের জায়গায় ফিরে গেলেন টম। 

দশ মিনিট পর সেই ক্লায়েন্ট এলেন। কোমল পানীয়ের অর্ডার দিলেন টম। তার সঙ্গে ব্যবসায়িক আলাপ শুরু করলেন। 
মিনিট দুয়েক পর কাঁধে মৃদু টোকা অনুভব করলেন টম। ঘুরে দেখলেন, বিল গেটস দাঁড়িয়ে আছেন। তিনি হাসিমুখে বললেন, ‘হাই টম।’ 
টম বিরক্তির সুরে বললেন, ‘জ্বালিয়ো না, বিল! এখন যাও। দেখছ না, আমি একটা গুরুত্বপূর্ণ মিটিংয়ে আছি!’