আষাঢ়ে গপ্পসপ্প
jugantor
আষাঢ়ে গপ্পসপ্প

  সোহানুর রহমান অনন্ত  

২৩ জুন ২০২১, ২২:০৪:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বাসা ভাড়া নেওয়ার সময় যেমনটা হয়
স্বামী-স্ত্রী : ভাড়া কম সবই বুঝলাম আঙ্কেল, ঘর আমাদের পছন্দ হইছে। কিন্তু দেয়াল এমন চুনা মেরে সাদা করেছেন কেন?
বাড়িওয়ালা : কন কী! রং পছন্দ হয় নাই! আমি এখনই লোক ডাইকা কালার চেইঞ্জ কইরা দিতাছি। টেনশন নিবেন না!

চাপাবাজ ফল বিক্রেতারও অভাব নেই
১ম ব্যক্তি : বললা, তোমার আম চিনির মতো মিষ্টি! কিন্তু খাওনের সময় দেখি একটা মিষ্টি একটা টক! শ্বশুরবাড়িতে মান-ইজ্জত আর রইল না!
ফল বিক্রেতা : রাখেন আপনার মান-ইজ্জত! একদামে দুই ফ্লেভারের স্বাদ পাইছেন। মিষ্টি আমের দাম পাইছি, এখন টক আমের দামটা দিয়া ভালোয় ভালোয় কাইট্টা পড়েন!

বিপদ-আপদে উপস্থিত বুদ্ধির ব্যবহার
বস : কী ব্যাপার মকবুল সাহেব, অফিসে এসেই নাকি ফাইল রেখে ফেসবুকে পোস্ট দেন। আপনাকে কি এই কাজের জন্য বেতন দিই?
কর্মচারী : আসলে স্যার আমি যে প্রতিদিন সময়মতো অফিসে আসি, সেটাই আপনাকে দেখানোর জন্য প্রতিদিন অফিসে আইসাই পোস্ট দিই!

আষাঢ় মাসে এমন দৃশ্য দেখা যেতে পারে
চামচা : আমাদের নেতা অত্যন্ত দিল-দরদি মানুষ। আপনাদের কষ্ট সহ্য করতে পারে না বইলাই গাড়ি ছাইড়া রাস্তার পানিতে নাইমা জনগণের কষ্টটা ফিল করতাছে।
পাবলিক : কিন্তু আমি তো শুনলাম অন্য কথা। একটু আগে নাকি সেলফি তোলার সময় নেতার হাত থেকে পানিতে মোবাইল পইড়া গেছে। সেইটা খুঁজতেই তিনিসহ তার চেলাপেলা সব পানিতে নামছে!

ফেসবুক ইউজারের বিয়ে যেমন হতে পারে
কাজী : শুভ কাজে বেশি বিলম্ব করতে নেই। এদিকে আবার ক্ষিদায় আমার পেট জ্বলতাছে। এবার দ্রুত বলো তো মা কবুল।
ফেসবুক ইউজার কনে : আঙ্কেল, আপনার ইনবক্স চেক করুন প্লিজ! আমারটা আমি ইনবক্সে বলে দিয়েছি!

আষাঢ়ে গপ্পসপ্প

 সোহানুর রহমান অনন্ত 
২৩ জুন ২০২১, ১০:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাসা ভাড়া নেওয়ার সময় যেমনটা হয়
স্বামী-স্ত্রী : ভাড়া কম সবই বুঝলাম আঙ্কেল, ঘর আমাদের পছন্দ হইছে। কিন্তু দেয়াল এমন চুনা মেরে সাদা করেছেন কেন?
বাড়িওয়ালা : কন কী! রং পছন্দ হয় নাই! আমি এখনই লোক ডাইকা কালার চেইঞ্জ কইরা দিতাছি। টেনশন নিবেন না!

চাপাবাজ ফল বিক্রেতারও অভাব নেই
১ম ব্যক্তি : বললা, তোমার আম চিনির মতো মিষ্টি! কিন্তু খাওনের সময় দেখি একটা মিষ্টি একটা টক! শ্বশুরবাড়িতে মান-ইজ্জত আর রইল না!
ফল বিক্রেতা : রাখেন আপনার মান-ইজ্জত! একদামে দুই ফ্লেভারের স্বাদ পাইছেন। মিষ্টি আমের দাম পাইছি, এখন টক আমের দামটা দিয়া ভালোয় ভালোয় কাইট্টা পড়েন!

বিপদ-আপদে উপস্থিত বুদ্ধির ব্যবহার
বস : কী ব্যাপার মকবুল সাহেব, অফিসে এসেই নাকি ফাইল রেখে ফেসবুকে পোস্ট দেন। আপনাকে কি এই কাজের জন্য বেতন দিই?
কর্মচারী : আসলে স্যার আমি যে প্রতিদিন সময়মতো অফিসে আসি, সেটাই আপনাকে দেখানোর জন্য প্রতিদিন অফিসে আইসাই পোস্ট দিই!

আষাঢ় মাসে এমন দৃশ্য দেখা যেতে পারে
চামচা : আমাদের নেতা অত্যন্ত দিল-দরদি মানুষ। আপনাদের কষ্ট সহ্য করতে পারে না বইলাই গাড়ি ছাইড়া রাস্তার পানিতে নাইমা জনগণের কষ্টটা ফিল করতাছে।
পাবলিক : কিন্তু আমি তো শুনলাম অন্য কথা। একটু আগে নাকি সেলফি তোলার সময় নেতার হাত থেকে পানিতে মোবাইল পইড়া গেছে। সেইটা খুঁজতেই তিনিসহ তার চেলাপেলা সব পানিতে নামছে!

ফেসবুক ইউজারের বিয়ে যেমন হতে পারে
কাজী : শুভ কাজে বেশি বিলম্ব করতে নেই। এদিকে আবার ক্ষিদায় আমার পেট জ্বলতাছে। এবার দ্রুত বলো তো মা কবুল।
ফেসবুক ইউজার কনে : আঙ্কেল, আপনার ইনবক্স চেক করুন প্লিজ! আমারটা আমি ইনবক্সে বলে দিয়েছি!

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন