ঘুম ভাঙবে গেইলের?

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

গেইল,

ক্রিস গেইলকে বলা হয় টি-টোয়েন্টির ফেরিওয়ালা। বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের কারণে বিশ্বের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট লিগে তার চাহিদা আকাশচুম্বী। এর প্রতিদানও দিয়ে আসছেন তিনি। তবে এবারের বিপিএলে হারিকেন জ্বেলে খুঁজতে হচ্ছে তাকে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চলমান আসরে ১১ ম্যাচের কোনোটিতেই ক্যারিবীয় দানবকে স্বরূপে দেখা যায়নি। মাত্র ১৮ গড়ে ১০৬ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ১৮৮ রান। একটি ফিফটির ইনিংস ছাড়া নজরে পড়ার মতো কোনো পারফরম্যান্স নেই।

সাধারণত আয়েশি ঘুম খুব পছন্দ গেইলের। তা হলে কী এবার বিপিএলেও ঘুমিয়ে থাকবেন টি-টোয়েন্টি কিং? কিন্তু এখনও আশায় বুক বেঁধে রেখেছে রংপুর রাইডার্স। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জেগে উঠবেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে গেইলের বিপক্ষে বল করতে বোলারদের বুক দুরু দুরু কাঁপে। কাঁপবেই বা না কেন? রীতিমতো বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালান তিনি। ব্যাটকে তলোয়ার বানিয়ে পেসার-স্পিনারদের করেন কচুকাটা। একাধারে যেমন ঘোরান ছড়ি, তেমনি চালান স্টিমরোলার। তবে বিপিএলের ষষ্ঠ আসরে খোলসবন্দি তিনি। যেখানে তার বিপক্ষে বল করার জন্য আগে থেকে পরিকল্পনা আঁটা হয়, সেখানে এবারের চিত্র ভিন্ন। মাঠের প্ল্যানেই কাজ হচ্ছে। আনকোরা বোলাররাও তাকে বোতলবন্দি করে রাখছেন। তবে জাগবেনই না ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ব্যাটার?

জাগবেন, ঘুম ভাঙবে, সময়মতো খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসবেন! ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙবেন। ক্ষুরধার ব্যাটিংয়ে ছোটাবেন রানের ফোয়ারা। বইয়ে দেবেন রানের নহর। রাজকীয় ঢঙে দলকে জেতাবেন। কিন্তু এখনও সেই আশায় জ্বালানি জোগাতে পারেননি। বলা হয়, গেইল বিগ ম্যাচের খেলোয়াড়। ডু অর ডাই ম্যাচে হাসে তার ব্যাট। সেই সুযোগ আরেকবার পাচ্ছেন তিনি।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় হাইভোল্টেজ ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে নামবে রংপুর রাইডার্স। বাঁচামরার ম্যাচে গেইলের পানে চেয়ে আছেন রংপুর শিবির। এ ম্যাচে হারলেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিশ্চিত হবে তাদের। জিতলে উঠে যাবে ফাইনালে। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার প্রত্যাশা- গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ঝলসে উঠবে তার ব্যাট। তোপ দাগিয়ে দলকে তুলবেন শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে। বনে যাবেন নায়ক।

গেইলের ব্যাটের ঝলক দেখার অপেক্ষায় অন্তিমলগ্নে থাকা বিপিএলের ষষ্ঠ আসরও। তথা কোটি ক্রিকেটপ্রেমী। এ ম্যাচে না হলে কখন হাসবে তার ব্যাট? সবার মনে একই প্রশ্ন। তাকে দলে অন্তর্ভুক্তি হিতে বিপরীত হয়ে গেল না তো?

রংপুরের টুর্নামেন্টটা শুরু হয়েছিল দারুণভাবে। মাঝপথে খেই হারাল। পরক্ষণে কক্ষপথে ফিরল। দল উঠল কোয়ালিফায়ারে। নেপথ্য নায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স, অ্যালেক্স হেলস, রাইলি রুশো। তাদের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে আড়ালে ছিলেন নিষ্প্রভ গেইল। কিন্তু চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় দেশে ফিরে গেছেন এবি। ইনজুরির কারণে ইংল্যান্ডে ফিরতে হয়েছে হেলসকে। স্বভাবতই এ ম্যাচে চোখ গেইলের দিকে।

আশার সলতেটা জ্বালিয়ে রাখছেন মাশরাফিও। কারণ বিপিএলের গেল আসরে প্লে অফ এবং ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে শতক হাঁকিয়েছিলেন গেইল। তিন অংকের ম্যাজিক ফিগার স্পর্শ করে রংপুরকে এনে দিয়েছিলেন প্রথম শিরোপা।

ম্যাশ বলেন, এখন একটা ম্যাচ আছে। যেটি আমাদের জন্য অঘোষিত সেমিফাইনাল। আশা করছি, বড় ম্যাচে গেইল ভূমিকা রাখবে। এ ফরম্যাটে তার দিকে সবারই চোখ থাকে। আমরাও ব্যতিক্রম নই। চেয়ে আছি ওর দিকে। কারণ সে আগের মৌসুমে একই কাজ করেছে।

আশা করছে রংপুর। ভয় পাচ্ছে ঢাকা। সীমিত ওভারের এ ফরম্যাটে ১৪৭ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করা গেইলকে নিয়ে ভীত প্রতিপক্ষ কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে ১২ হাজারের বেশি রান রয়েছে তার নামের পাশে। সেঞ্চুরি সবচেয়ে বেশি। অভিজ্ঞ এ ব্যাটার জ্বলে উঠবেন যে কোনো দিন। অকপটে স্বীকার করেছেন সুজন।

শেষ কোয়ালিফায়ারের যুদ্ধে মুখোমুখি রংপুর-ঢাকা। বারুদ ও উত্তেজনায় ঠাসা ম্যাচে নিজের ব্যাটের প্রশস্ততা দেখাবেন গেইল। কারণ পঞ্চম আসরের ফাইনালে ঢাকাকে পরাজিত করার মূলে ছিল তার ব্যাটিং ঝড়। খেলেছিলেন ১৪৬ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস।

সুজন বলেন, গেইল খেলতে পারছে না। এটিই আসলে ভয়ের কারণ। আগের ফাইনালে তার অনবদ্য সেঞ্চুরি আমাদের ব্যাকফুটে ঠেলে দিয়েছিল। সে হলো ঘুমন্ত সিংহ। জেগে গেলে হুঙ্কার ছুড়বেই। জাদরেল দৈত্য, বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান ও গেম চেঞ্জার।

যার নামের পাশে এত এত বিশেষণ। নিশ্চয়ই আস্থার প্রতিদানও তার দেয়া উচিত। সুতোয় ঝুলছে দলের ভাগ্য। স্বাভাবিকভাবেই তার দিকে চেয়ে রংপুর ও সমর্থকরা। ঝড়ের অপেক্ষায় বিপিএল। সর্বোপরি তার ব্যাটের দিকে তাকিয়ে পুরো বাংলাদেশ।

তবে কী সন্ধ্যায় চেনা রূপে দেখা মিলবে গেইলের? ধারণ করবেন রুদ্রমূর্তি? পেণ্ডুলামের মতো দুলতে থাকা দলকে উদ্ধার করবেন? আরেকবার সামর্থ্যের প্রমাণ দেবেন ইউনিভার্স বস? চোখ রাখুন টিভি পর্দায়।

ঘটনাপ্রবাহ : রংপুর রাইডার্স: বিপিএল ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×