স্যার শামসুর রহমানকে একটা সুযোগ দেন...

  স্পোর্টস রিপোর্টার ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২৩:১০ | অনলাইন সংস্করণ

শামসুর রহমান শুভ
শামসুর রহমান শুভ

জাতীয় দলে অভিষেকের পর দুর্দান্ত পারফর্ম করেন শামসুর রহমান শুভ। তবে সেই পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে না পারায় ২০১৪ সালের নভেম্বর দল থেকে বাদ পড়ে যান। বিপিএলের চলমান ষষ্ঠ আসরে তামিম ইকবালের অনুরোধে শেষ পর্যন্ত শামসুর রহমানের ঠাঁই হয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে।

চলতি বিপিএলে ৯ ম্যাচে ২৩.৩৩ গড়ে ২১০ রান করেন শামসুর রহমান। গত সোমবার প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ইনিংসের শেষ দিকে ব্যাটিংয়ে ঝড় তোলেন শামসুর।

১৫ বলে ২টি ছক্কা এবং চারটি চারের সাহায্যে ৩৪ রানের লড়াকু ইনিংস খেলে নির্ধারিত ওভারের ৭ বল আগেই দলকে ফাইনালে তুলে দেন। অবশ্য শুভ ব্যাটিংয়ে নামার আগেই জয়ের পথেই ছিল কুমিল্লা। ৫৩ বলে ৭১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন ইভিন লুইস।

শামসুর রহমান শুভর এমন অসাধারণ ব্যাটিং নিয়ে বিপিএল ফাইনালের ঠিক আগের দিন বৃহস্পতিবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেন, সে নিজের যোগ্যতায় সাফল্য পাচ্ছে। তার এমন পারফরম্যান্সের পুরো ক্রেডিট আমি তামিমকে দেব। তামিমের কল্যাণেই সে এই টিমে এসেছে। প্রথমে আমি তাকে নিতে চাইনি। কিন্তু তামিম বলেছে সে অনেক প্র্যাকটিস করতেছে স্যার একটা সুযোগ দেন। এই কারণে শামসুর রহমানকে দলে নেয়া। সে যদি ক্রিকেট নিয়ে আরেকটু সিরিয়াস হয়, তার এখনও সুযোগ আছে জাতীয় দলে কামব্যাক করার।

শামসুর রহমান শুভর প্রতিভা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) প্রথম আসরে অসাধারণ পারফরম্যন্স করেন শুভ। রংপুর রাইডার্সের হয়ে ১২ ম্যাচে রেকর্ড ৬টি ফিফটিতে ৪২.১০ গড়ে বিপিএলের তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪২১ রান করেন তিনি।

বিপিএলের এই অসাধারণ পারফরম্যান্সই তাকে সুযোগ করে দেয় জাতীয় দলে খেলার। জাতীয় দলে অভিষেকের পরও ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি এবং টেস্টে দুর্দান্ত পারফর্ম করেন।

২০১৩ সালের অক্টোবরে ওয়ানডে ক্রিকেটের মধ্য দিয়ে অভিষেক হওয়া শাসমুর রহমান ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফতুল্লায় ৯৬ রানের ইনিংস খেলেন। ঠিক পরের ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে করেন ৬২ রান।

টি-টোয়েন্টির সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে শ্রীলংকার বিপক্ষে অভিষেকে শূন্য রানে আউট হওয়া শুভ, দ্বিতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে করেন ৫৩ রান।

এই পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকে টেস্টেও। ২০১৪ সালের জানুয়ারিত টেস্ট অভিষেকের পর দ্বিতীয় টেস্টেই শ্রীলংকার বিপক্ষে চট্টগ্রামে সেঞ্চুরি হাঁকান। এরপর পারফরম্যান্সের ধারবাহিকতা ধরে রাখতে না পারায় টেস্ট, ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টিত তিন ফরম্যাট থেকেই বাদ পড়েন শামসুর রহমান।

ঘটনাপ্রবাহ : কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স: বিপিএল ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×