বেরোবি ছাত্রলীগের আলটিমেটাম

  বেরোবি প্রতিনিধি ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) বহিরাগতদের হামলা-হয়রানি বন্ধ করে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিতে আলটিমেটাম দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।

বুধবার রাত ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সঙ্গে বহিরাগত (স্থানীয়) ছাত্রলীগের সংঘর্ষ শেষে শাখা ছাত্রলীগ এই আলটিমেটাম দেয়।

এ সময় স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল আজম ফাইনের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট ও শিক্ষার্থীদের জানমালের ক্ষতির অভিযোগ তোলেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও সম্পাদক নোবেল শেখ।

সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও ক্যাম্পাসে বর্তমান থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা রয়েছে।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, গত ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ও শহীদ মুখতার ইলাহী হলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের মামলায় গ্রেফতার হন স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল আজমসহ কয়েকজন। ২২ দিন পর জামিনে বেরিয়ে এসে বুধবার রাত ৯টায় বহিরাগত দলবল নিয়ে দেশীয় অস্ত্র, লাঠিসোঁটা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে হামলা চালায়।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তুলে তাদের ধাওয়া দেয়। এ সময় দুপক্ষের অনেকেই দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান নেয়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি তুষার কিবরিয়ার নেতৃত্বে হল থেকে প্রায় চার শতাধিক শিক্ষার্থীকে সঙ্গে নিয়ে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে। বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির সামনে এসে বহিরাগতদের ক্যাম্পাসে হামলার অভিযোগ তুলে রাতের মধ্যে তাদের গ্রেফতার করা না হলে বৃহস্পতিবার থেকে সব ক্লাশ পরীক্ষা বন্ধের আলটিমেটাম দেয় শাখা ছাত্রলীগ।

এ বিষয়ে তাজহাট থানার ওসি শেখ রোখনুজ্জামান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় পরিস্থিতি অস্থিতিশীল হলে তাজহাট থানা পুলিশ তা নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ছাত্রলীগের আলটিমেটামের বিষয়ে তিনি বলেন, এটা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন দেখবে। এ বিষয়ে কোনো সহযোগিতা চাইলে তাজহাট থানা পুলিশ প্রস্তুত আছে। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা রয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) বলেন, গত ২১ আগস্ট কিছু দুষ্কৃতকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই হল ভাঙচুর করলে শাখা ছাত্রলীগ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা হলে গ্রেফতার হয় ৩ জন। দীর্ঘদিন পর জেল থেকে ফিরে ক্যাম্পাসে হঠাৎ করেই একটি ভীতিকর পরিবেশের সৃষ্টি করতে যাচ্ছিল। হঠাৎ করে আজকে একটা বিশৃঙ্খলা তৈরি করার জন্য ক্যাম্পাসে প্রবেশ করার চেষ্টা করেছিল।

তিনি আরও বলেন, কিছু শিক্ষার্থী সংঘবদ্ধভাবে তাদের ক্যাম্পাস থেকে বের করে দিয়েছে। এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন খুবই সতর্ক অবস্থানে আছে। যেন কোনো ধরনের ভাবমূর্তি বা পরিবেশ যেন নষ্ট না হয়।

ছাত্রলীগের আলটিমেটামের বিষয়ে প্রক্টর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রমে যাতে কোনো ঝামেলা না হয় সে ব্যাপারে প্রশাসন সজাগ থাকবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর
-

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×