আবরার হত্যা: জাবি শিক্ষার্থীদের ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ

  জাবি প্রতিনিধি ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ২৩:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

সড়ক অবরোধ করে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
সড়ক অবরোধ করে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার থেকে মিছিলটি শুরু হয়। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদিক্ষণ শেষে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে অবস্থান নেয়।

অপরদিকে আবরারসহ রাজনৈতিক মতাদর্শের বিভেদের কারণে সংগঠিত সব হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।

মঙ্গলবার সমিতির সভাপতি অধ্যাপক অজিত কুমার মজুমদার ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সোহেল রানা স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি করা হয়।

শিক্ষক নেতারা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেন, সমাজে বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই এ ধরণের হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হচ্ছে। তাই এ ধরণের সব হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করেন তারা।

দেড় ঘণ্টা ধরে চলা এ অবরোধে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে আটকে পড়ে সহস্রাধিক যানবাহন। অবরোধ স্থল থেকে শুরু করে নবীনগর ও সাভার পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

আন্দোলনকারীরা আবরার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের ফাঁসির দাবি জানান।

মিছিল শেষে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ দিদার বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার কোনো রকম স্বার্থ ছাড়া দেশের পানি, গ্যাস, বন্দর ভারতকে দিয়ে দিয়েছে। এই একই কথা আবরার বলার কারণে সারারাত পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে। আবরার যে কথা বলেছে সেটা শুধু তার কথা নয়। বাংলাদেশের সব মানুষের কথা। আমরা আবরার হত্যার তীব্র নিন্দা জানাই।

তিনি বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ড কোনো নির্দিষ্ট অংশের অংশগ্রহণে হয়নি। আমরা মনে করি এটা রাষ্ট্রীয় হত্যাকাণ্ড। রাষ্ট্রের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করা এবং ভারতীয় সাম্রাজ্যবাদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার জন্যেই আবরারকে হত্যা করা হয়েছে। আবরার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সবাইকে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।’

ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সভাপতি নজির আমিন চৌধুরি জয় বলেন, ‘১৯৭১ সালে এই বাংলার জনগন শ্লোগান দিতো পিন্ডি না ঢাকা? আজকে ও আমরা একই শ্লোগান দিচ্ছি। দেশ পাল্টেছে কিন্তু পরিস্থিতি পাল্টেনি। পূর্ব বাংলা, বাংলাদেশে হয়েছে কিন্তু পশ্চিম পাকিস্তানের সেই ক্ষমতাটুকু আজকে ভারত নিয়েছে। বাংলাদেশ থেকে ভারতকে ট্রানজিট দেয়া হয় তাদেরকে পানি দেয়া হয়। এই প্রক্রিয়ায় তারা বাংলাদেশকে চুষে নিচ্ছে। এর বিরুদ্ধে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার পর বুয়েট শিক্ষার্থী আবরারকে খুন করা হয়।’

এসময় তিনি আবরার হত্যার বিচারের দাবি করে দেশবিরোধী সব চুক্তি বাতিলের দাবি করেন।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের কার্যকারী সদস্য রাকিবুল রনি, বাংলাদেশে সাধারণ ছাত্র সংরক্ষণ পরিষদ জাবি শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক আরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

ঘটনাপ্রবাহ : বুয়েট ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর
-

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×