আবরারকে কেন হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নেয়া হলো না? জানেন না আনিসুল

  যুগান্তর রিপোর্ট ০২ নভেম্বর ২০১৯, ১৭:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

আবরার-আনিসুল

দৈনিক প্রথম আলোর সাময়িকী কিশোর আলোর আনন্দ অনুষ্ঠানে ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র নাইমুল আবরার শুক্রবার বিকালে বিদ্যুৎস্পর্শ হওয়ার পর তাকে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে নেয়ার পর আবরারকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

তবে রেসিডেন্সিয়াল কলেজ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের প্রশ্ন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার পর আবরারকে চিকিৎসার জন্য আশেপাশের হাসপাতালে নেয়া হলো না?

কেউ কেউ বলছেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার পর আবরারকেরাস্তার উল্টো পাশেরই শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া উচিত ছিল।

কিন্তু আবরারকে আশেপাশের হাসপাতালে না নিয়ে কেন মহাখালীতে নেয়া হলো সে বিষয়ে কিছু জানেন না কিশোর আলোর সম্পাদক আনিসুল হক।

শুক্রবার দিনগত রাত দেড়টার দিকে নিজের ফেসবুক পেজে তিনি লেখেন, ‘ইউনিভার্সাল হাসপাতাল আমাদের স্পন্সর নয়। তারা আমাদেরকে জরুরি মেডিকেল সার্ভিস দেবার জন্য ওখানে ছিলেন। দুজন এফসিপিএস ডাক্তার ছিলেন।

একটা অ্যাম্বুলেন্স রেডি করা ছিল। সেই অ্যাম্বুলেন্সেই নাইমুল আববারকে হাসপাতালে নেয়া হয়। কেন তাকে হৃদরোগ ইন্সিটিউটে নেয়া হলো না, এই প্রশ্নের উত্তর অবশ্য আমার জানা নেই।’

তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে রেসিডেনসিয়ালে কলেজের একজন শিক্ষক বলেন, ‘আয়োজকরা তাকে কাছের সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে না নিয়ে মহাখালীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যায়।’

ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ওই অনুষ্ঠান আয়োজনের অংশীদার ছিল বলে জানান তিনি।

ঘটনাপ্রবাহ : রেসিডেনসিয়াল ছাত্র আবরারের মৃত্যু

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

-

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×