জাবি ভিসিকে হুমকির অভিযোগে ৭ আন্দোলনকারীর বিরুদ্ধে জিডি

  জাবি প্রতিনিধি ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২২:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

জাবির আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে জিডি
জাবির আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে জিডি। ফাইল ছবি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামকে ‘অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ’ এবং ‘শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত’ করার হুমকি দেয়ার অভিযোগে ৭ আন্দোলনকারীর বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহিন ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সভাপতি নজির আমিন চৌধুরী জয় ও ছাত্র ফ্রন্ট (মার্কসবাদী) জাবি শাখার সভাপতি মাহাথির মুহাম্মদের নাম উল্লেখসহ আরও পাঁচজন অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় এ জিডি করেন।

মাহাথির মুহাম্মদ এবং নজির আমিন চৌধুরী জয় ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে চলমান উপাচার্য বিরুদ্ধে আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক।

উপাচার্যকে হুমকির অভিযোগের বিষয়ে মাহাথির মুহাম্মদ বলেন, এটা একটা মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক অভিযোগ। আমরা অনুমতি নিয়েই তার কার্যালয়ে প্রবেশ করেছি। আন্দোলনকারীদের ওপর এমন ন্যক্কারজনক হামলার পর আমরা তাকে দায়িত্ব পালন না করতে অনুরোধ জানাই। এটাকে হুমকি হিসেবে সাজানো হয়েছে। এটা সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

নজির আমিন চৌধুরী জয় বলেন, একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ে শিক্ষার্থীরা কথা বলতে গেলে সেটাকে যদি হুমকি হিসেবে বিবেচনা করা হয় তাহলে সেটি দুঃখজনক। এর মধ্য দিয়ে উপাচার্য কতটা অসহিষ্ণু মনোভাবের তা বোঝা যায়।

জিডির বিষয়ে আশুলিয়া থানার ওসি শেখ রেজাউল হক দিপু হক বলেন, জিডি হয়েছে বলে শুনেছি। তবে এখনও হাতে পাইনি।

এর আগে গত ১ নভেম্বর সহকারী প্রক্টর মহিবুর রৌফ শৈবালের ওপর হামলার অভিযোগে অজ্ঞাত ৫০-৬০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

ঘটনাপ্রবাহ : জাবিতে অনিয়ম

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

-

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×