দেশ গড়ার প্রত্যয়ে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে: আইনমন্ত্রী

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৫:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

দেশ গড়ার প্রত্যয়ে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে: আইনমন্ত্রী
নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটিতে ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলামসহ অতিথিরা। ছবি: সংগৃহীত

নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটিতে (এনএসইউ) ‘স্প্রিং-২০২০’ সেমিস্টারের নবাগত ছাত্রছাত্রীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার উচ্চ শিক্ষার শুরুতেই বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে পরিচিতি অনুষ্ঠানে অংশ নেন নবীন শিক্ষার্থীরা।

এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের চারটি অনুষদের ১৬টি বিভাগে স্নাতক (সম্মান) কোর্সে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে প্রায় তিন হাজার শিক্ষার্থী এবং সেই সঙ্গে ভর্তি পরীক্ষায় ভালো ফলের জন্য ৪৮ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আনিসুল হক এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনওয়া প্রেফন্টেন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা লায়ন বেনজীর আহমেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, আমাদের ছাত্রসমাজকে দেশ গড়ার প্রত্যয়ে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। যুগোপযোগী ও মানসম্পন্ন শিক্ষা দিতে হবে। আমি নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটিকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। কেননা তারা এ পর্যন্ত ১১৮ কোটি টাকা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করেছে।

তিনি আরও বলেন, আমার বিশ্বাস– তাদের এ উদ্যোগ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে এবং আরও বেগবান হবে। গরিব-মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের আরও অধিক হারে শিক্ষালাভের সুযোগ করে দেয়ার জন্য আমি তাদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

আনিসুল হক বলেন, আমি জেনে অত্যন্ত আনন্দিত যে, নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটি মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বিনাবেতনে পড়ার সুযোগ করে দিয়েছে এবং এ পর্যন্ত ১২০০-এর অধিক মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে বিনাবেতনে শিক্ষা প্রদান করেছে। এটি অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার। কারণ বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান হলেন মুক্তিযোদ্ধারা। তাদের সম্মানিত করে নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটি আমাদের দেশ, মুক্তিযুদ্ধ এবং মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে সম্মানিত করেছে।

বেনওয়া প্রেফন্টেন বলেন, ইউনিভার্সিটিতে অধ্যয়নকালে, শিক্ষার্থীদের কেবল নিজের পড়াশোনা এবং ক্যারিয়ারের জন্যই নয়; সারা জীবনের জন্যও প্রস্তুত হতে হবে। কেবল একটি চাকরি সন্ধানের জন্য জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জন না করে, একজন ভালো মানুষ হওয়ার জন্য ব্যক্তিগত গুণাবলিকে বাড়িয়ে তুলতে হবে। নিজের থেকে পৃথক বন্ধু তৈরি করতে হবে এবং বন্ধুদের কাছ থেকে শিখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, জ্ঞান দায়িত্ব নিয়ে আসে। তোমরা কোন ধরনের ব্যক্তি হতে চাও এবং তোমাদের জীবন কেমন হবে তা তোমাদের ঠিক করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা লায়ন বেনজীর আহমেদ বলেন, আমরা মনে করি একটি ভালো বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি জিনিসের খুবই প্রয়োজন। প্রথমটি হলো– ভালো শিক্ষার্থী, যা নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি কঠোর ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে নির্বাচন করে থাকে। দ্বিতীয়টি হলো– ভালো শিক্ষকবৃন্দ। আমরা আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষকবৃন্দ নিয়োগ প্রদান করে তাদের দিয়ে পাঠদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা প্রদান করে থাকি। আর তৃতীয়টি হলো– আন্তর্জাতিক মানের সুযোগ-সুবিধাসংবলিত একটি ক্যাম্পাস।

আমরা এই তিনটি উপাদানের সঠিক সমন্বয়ের মাধ্যমে একটি বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয় তৈরিতে সক্ষম হয়েছি। এ সময় তিনি আরও বলেন, নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির শতভাগ শিক্ষার্থী দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানে কাজের মাধ্যমে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ করে দেশের উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখছে।

নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম বলেন, নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটিতে ভর্তির সিদ্ধান্ত নিঃসন্দেহে একটি যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত। আমি শিক্ষার্থীদের এই যাত্রা যেন নির্বিঘ্ন হয়, সে জন্য অভিভাবকদের সজাগ দৃষ্টিকামনা করছি।

তিনি বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা প্রদানে বদ্ধপরিকর। এ সময় তিনি আগত অতিথিদের ধন্যবাদ জানান এবং সম্মানিত অভিভাবকদের নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ওপর আস্থা রাখার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এ ছাড়া অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য এমএ হাসেম, এমএ কাসেম এবং মিস রেহানা রহমান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম ইসমাইল হোসেন, রেজিস্ট্রারার, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন বিভাগের পরিচালক, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা, বিপুলসংখ্যক অভিবাবক ও শিক্ষার্থীরা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর
-

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×