চাকরি আবেদন ফি কমাতে ঢাবিতে বিক্ষোভ
jugantor
চাকরি আবেদন ফি কমাতে ঢাবিতে বিক্ষোভ

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৫:৫৭:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

চাকরি আবেদন ফি কমাতে ঢাবিতে বিক্ষোভ

চাকরির পরীক্ষায় আবেদন ফি কমাতে বিক্ষোভ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকালে রাজু ভাস্কর্যে ‘সাধারণ চাকরি প্রার্থীগণ’ ব্যানারে এই বিক্ষোভে হাজারের বেশি পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছেন।

এ সময় ৯ম গ্রেডে ২০০ টাকা, ১০ম গ্রেড ১৫০ টাকা, ১১-১৪ গ্রেড ১০০ এবং ১৫-২০ গ্রেডের জন্য ৫০ টাকা আবেদন ফি ধার্যের আহ্বান জানান তারা।

বর্তমানে ৯ম গ্রেডের জন্য এক হাজার টাকা, ১০ গ্রেডের জন্য ৫০০ টাকা, ১৭-২০ গ্রেড পর্যন্ত ২০০ টাকা আবেদন ফি নেয়া হয়। অনেক ক্ষেত্রে ১০ম গ্রেডে এক হাজার টাকা এবং ১৩-১৪ গ্রেডে ৭০০ টাকা আবেদন ফি নেয় কর্তৃপক্ষ।

আন্দোলনে অংশ নেয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইসলাম শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থী ইয়ামিন বলেন, যেখানে উন্নত দেশে বেকারদের ভাতা দেয়া হয়, সেখানে বেকার ভাতা দূরে থাক আমাদের থেকে অতিরিক্ত ফি নেয়া হয়।

তিনি বলেন, আমাদের বেকার ভাতা লাগবে না, একটাই দাবি নিয়োগে আবেদন ফি কমাতে হবে।

সমাজ বিজ্ঞানের তাসলিমা আক্তার বলেন, এত টাকা ফি দিয়ে শিক্ষার্থীদের নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেয়া সম্ভব না।

চাকরি আবেদন ফি কমাতে ঢাবিতে বিক্ষোভ

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৯ জানুয়ারি ২০২০, ০৩:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চাকরি আবেদন ফি কমাতে ঢাবিতে বিক্ষোভ
ছবি: সংগৃহীত

চাকরির পরীক্ষায় আবেদন ফি কমাতে বিক্ষোভ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকালে রাজু ভাস্কর্যে ‘সাধারণ চাকরি প্রার্থীগণ’ ব্যানারে এই বিক্ষোভে হাজারের বেশি পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছেন। 

এ সময় ৯ম গ্রেডে ২০০ টাকা, ১০ম গ্রেড ১৫০ টাকা, ১১-১৪ গ্রেড ১০০ এবং ১৫-২০ গ্রেডের জন্য ৫০ টাকা আবেদন ফি ধার্যের আহ্বান জানান তারা।

বর্তমানে ৯ম গ্রেডের জন্য এক হাজার টাকা, ১০ গ্রেডের জন্য ৫০০ টাকা, ১৭-২০ গ্রেড পর্যন্ত ২০০ টাকা আবেদন ফি নেয়া হয়। অনেক ক্ষেত্রে ১০ম গ্রেডে এক হাজার টাকা এবং ১৩-১৪ গ্রেডে ৭০০ টাকা আবেদন ফি নেয় কর্তৃপক্ষ।

আন্দোলনে অংশ নেয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইসলাম শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থী ইয়ামিন বলেন, যেখানে উন্নত দেশে বেকারদের ভাতা দেয়া হয়, সেখানে বেকার ভাতা দূরে থাক আমাদের থেকে অতিরিক্ত ফি নেয়া হয়।

তিনি বলেন, আমাদের বেকার ভাতা লাগবে না, একটাই দাবি নিয়োগে আবেদন ফি কমাতে হবে।

সমাজ বিজ্ঞানের তাসলিমা আক্তার বলেন, এত টাকা ফি দিয়ে শিক্ষার্থীদের নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেয়া সম্ভব না।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন