গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে ‘একাডেমিক লিডারশিপ অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট’ ওয়ার্কশপ
jugantor
গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে ‘একাডেমিক লিডারশিপ অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট’ ওয়ার্কশপ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১২ মার্চ ২০২০, ১৮:৪৫:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বীয় সত্তাকে প্রতিষ্ঠিত করতে শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম; আর বিশ্ব প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে শিক্ষার পাশাপাশি প্রয়োজন প্রাতিষ্ঠানিক নেতৃত্বদানের যোগ্যতা ও মানসম্মত ব্যবস্থাপনার জ্ঞান। মূলত সে লক্ষ্যেই ‘একাডেমিক লিডারশিপ অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী ওয়ার্কশপের আয়োজন করেছে গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ। কর্মশালায় বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের দুই শতাধিক শিক্ষক ও কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন।

বৃহস্পতিবার ওয়ার্কশপের সমাপনী দিনে মুখ্য ফ্যাসিলেটেটর ও গ্রিন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, উচ্চশিক্ষায় প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের অবদান অনেক। যদিও গুণগত মান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি করা এখনও বড় চ্যালেঞ্জ।

তিনি বলেন, একজন শিক্ষককে শুধু শিক্ষাদান ও গবেষণায় পারদর্শী হলেই চলবে না, পাশাপাশি তাকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ম্যানেজমেন্ট এমনকি সমাজের জন্যও কাজ করতে হবে। মূলত এ কারণেই তাকে ‘লিডারশিপ’ ও ‘কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট’ জানতে হবে। ওয়ার্কশপের মাধ্যমে সেটাই তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।

উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, যে কোনো ওয়ার্কশপই পেশাদারিত্বের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, প্রত্যেকেই কোনো না কোনো ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিয়ে থাকেন। সে হিসেবে নেতৃত্বের প্রতিভা সবার মধ্যেই থাকে। সে নেতৃত্ব কীভাবে প্রতিষ্ঠানের কাজে লাগানো যায় ওয়ার্কশপের মাধ্যমে সেটা আলোচনা হয়েছে। বক্তৃতাকালে উপ-উপাচার্য অবকাঠামো ও অভ্যন্তরীণ উন্নয়নে গ্রিন ইউনিভার্সিটির নানা পদক্ষেপের কথা জানান।

গ্রিন বিজনেস স্কুলের ডিন অধ্যাপক ড. গোলাম আহমেদ ফারুকী বলেন, উচ্চমানের বিশ্ববিদ্যালয় তৈরিতে শিক্ষাদানের পাশাপাশি ম্যানেজমেন্টও জরুরি। এ দুটো বিষয়ের সমন্বয় হলেই একটি বিশ্ববিদ্যালয় তার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে। ওয়ার্কশপে কোষাধ্যক্ষ মো. শহীদ উল্লাহ, প্রফেসর অধ্যাপক ড. নিতাই চন্দ্র সূত্রধর, রেজিস্টার মো. সাইফুল ইসলামসহ বিভাগীয় চেয়ারপার্সন, শিক্ষক ও কর্মকর্তারা অংশ নেন।

গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে ‘একাডেমিক লিডারশিপ অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট’ ওয়ার্কশপ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১২ মার্চ ২০২০, ০৬:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বীয় সত্তাকে প্রতিষ্ঠিত করতে শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম; আর বিশ্ব প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে শিক্ষার পাশাপাশি প্রয়োজন প্রাতিষ্ঠানিক নেতৃত্বদানের যোগ্যতা ও মানসম্মত ব্যবস্থাপনার জ্ঞান। মূলত সে লক্ষ্যেই ‘একাডেমিক লিডারশিপ অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী ওয়ার্কশপের আয়োজন করেছে গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ। কর্মশালায় বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের দুই শতাধিক শিক্ষক ও কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন।

বৃহস্পতিবার ওয়ার্কশপের সমাপনী দিনে মুখ্য ফ্যাসিলেটেটর ও গ্রিন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, উচ্চশিক্ষায় প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের অবদান অনেক। যদিও গুণগত মান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি করা এখনও বড় চ্যালেঞ্জ।

তিনি বলেন, একজন শিক্ষককে শুধু শিক্ষাদান ও গবেষণায় পারদর্শী হলেই চলবে না, পাশাপাশি তাকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ম্যানেজমেন্ট এমনকি সমাজের জন্যও কাজ করতে হবে। মূলত এ কারণেই তাকে ‘লিডারশিপ’ ও ‘কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট’ জানতে হবে। ওয়ার্কশপের মাধ্যমে সেটাই তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।

উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, যে কোনো ওয়ার্কশপই পেশাদারিত্বের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, প্রত্যেকেই কোনো না কোনো ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিয়ে থাকেন। সে হিসেবে নেতৃত্বের প্রতিভা সবার মধ্যেই থাকে। সে নেতৃত্ব কীভাবে প্রতিষ্ঠানের কাজে লাগানো যায় ওয়ার্কশপের মাধ্যমে সেটা আলোচনা হয়েছে। বক্তৃতাকালে উপ-উপাচার্য অবকাঠামো ও অভ্যন্তরীণ উন্নয়নে গ্রিন ইউনিভার্সিটির নানা পদক্ষেপের কথা জানান।

গ্রিন বিজনেস স্কুলের ডিন অধ্যাপক ড. গোলাম আহমেদ ফারুকী বলেন, উচ্চমানের বিশ্ববিদ্যালয় তৈরিতে শিক্ষাদানের পাশাপাশি ম্যানেজমেন্টও জরুরি। এ দুটো বিষয়ের সমন্বয় হলেই একটি বিশ্ববিদ্যালয় তার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে। ওয়ার্কশপে কোষাধ্যক্ষ মো. শহীদ উল্লাহ, প্রফেসর অধ্যাপক ড. নিতাই চন্দ্র সূত্রধর, রেজিস্টার মো. সাইফুল ইসলামসহ বিভাগীয় চেয়ারপার্সন, শিক্ষক ও কর্মকর্তারা অংশ নেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন