বৃহস্পতিবারের মধ্যে জাবি শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ
jugantor
বৃহস্পতিবারের মধ্যে জাবি শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ

  জাবি প্রতিনিধি  

১৬ মার্চ ২০২০, ২১:৪৯:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ক্লাস-পরীক্ষা বুধবার থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

একই সঙ্গে ১৯ মার্চ বেলা ১১টার মধ্যে আবাসিক শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

সোমবার দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক মো. নূরুল আলম ও বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কার্যালয়।

সিন্ডিকেট সভা শেষে অধ্যাপক নূরুল আলম বলেন, ‘করোনাভাইরাস মোকাবিলার লক্ষ্যে আগামী ১৮ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের আগামী ১৯ মার্চ বেলা ১১টার মধ্যে আবাসিক হল ত্যাগ করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ২২ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব অফিস বন্ধ থাকবে। তবে এ সময় বিদ্যুৎ, পানি ও চিকিৎসা সেবাসমূহ চালু থাকবে।’

এর আগে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ স্বাক্ষরিত অন্য এক বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে সব ধরনের সভা-সমাবেশ সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ‘করোনাভাইরাস আক্রমণ ও বিস্তার প্রতিরোধে বিশ্ববিদ্যালয় অভ্যন্তরে শিক্ষা সফর, ক্যাম্পাস পরিদর্শন, অতিথি পাখি দেখা, বিভিন্ন ব্যাচের পুনর্মিলনী, শুটিং, কনসার্টসহ সব ধরনের অনুষ্ঠান এবং সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হল।’

একই সঙ্গে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের প্রবেশিকা অনুষ্ঠানও স্থগিত করা হয়।

বৃহস্পতিবারের মধ্যে জাবি শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ

 জাবি প্রতিনিধি 
১৬ মার্চ ২০২০, ০৯:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ক্লাস-পরীক্ষা বুধবার থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

একই সঙ্গে ১৯ মার্চ বেলা ১১টার মধ্যে আবাসিক শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

সোমবার দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক মো. নূরুল আলম ও বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কার্যালয়।

সিন্ডিকেট সভা শেষে অধ্যাপক নূরুল আলম বলেন, ‘করোনাভাইরাস মোকাবিলার লক্ষ্যে আগামী ১৮ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের আগামী ১৯ মার্চ বেলা ১১টার মধ্যে আবাসিক হল ত্যাগ করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ২২ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব অফিস বন্ধ থাকবে। তবে এ সময় বিদ্যুৎ, পানি ও চিকিৎসা সেবাসমূহ চালু থাকবে।’

এর আগে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ স্বাক্ষরিত অন্য এক বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে সব ধরনের সভা-সমাবেশ সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ‘করোনাভাইরাস আক্রমণ ও বিস্তার প্রতিরোধে বিশ্ববিদ্যালয় অভ্যন্তরে শিক্ষা সফর, ক্যাম্পাস পরিদর্শন, অতিথি পাখি দেখা, বিভিন্ন ব্যাচের পুনর্মিলনী, শুটিং, কনসার্টসহ সব ধরনের অনুষ্ঠান এবং সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হল।’ 

একই সঙ্গে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের প্রবেশিকা অনুষ্ঠানও স্থগিত করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

০৪ ডিসেম্বর, ২০২১