ছাত্রী নিপীড়নে বাকৃবির শিক্ষার্থীকে মারধর
jugantor
ছাত্রী নিপীড়নে বাকৃবির শিক্ষার্থীকে মারধর

  বাকৃবি প্রতিনিধি  

১৭ মার্চ ২০২০, ১৪:২০:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ছাত্রী নিপীড়নে বাকৃবির শিক্ষার্থীকে মারধর

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) এক ছাত্রীকে নিপীড়নের অভিযোগে মো. ওবাইদুল হক রাব্বি নামে এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের করিডোরে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ওবাইদুল বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষিতত্ত্ব বিভাগের মাস্টার্স ও আশরাফুল হক হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

জানা যায়, সোমবার রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের করিডোরে এক ছাত্রীকে নিপীড়ন করছিলেন ওই ছাত্র। এ সময় অনিক নামের এক শিক্ষার্থী ঘটনাটি দেখে ফেলে। পরে অনিক ও অনিকের বন্ধুরা মিলে অভিযুক্ত ওবাইদুলকে ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের জব্বারের মোড়ে নিয়ে যায়। সেখানে নিপীড়নের অভিযোগ তুলে ওবাইদুলকে মারধর করেন তারা।

এর পর ওবাইদুলকে আশরাফুল হক হলের গেস্টরুমে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখানে প্রক্টরিয়াল বডি উপস্থিত হয়ে আহত ওবাইদুলকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ক্যাম্পে নিয়ে যান।

অভিযুক্ত ওবায়দুল এ নিপীড়নের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ছাত্রী নিপীড়নের সময় অনিক ও তার বন্ধুরা আমাকে দেখে ফেলে মারধর করার পর আমাকে আশরাফুল হক হলের গেস্টরুমে নিয়ে যায়। পরে প্রক্টরিয়াল বডি আমাকে উদ্ধার করে।

এর আগেও ওবাইদুলের বিরুদ্ধে নিপীড়নসহ বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. আজহারুল হক বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষার্থীকে সংশোধনের জন্য তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখার জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। পরবর্তীতে তদন্ত কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী অভিযুক্ত শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ছাত্রী নিপীড়নে বাকৃবির শিক্ষার্থীকে মারধর

 বাকৃবি প্রতিনিধি 
১৭ মার্চ ২০২০, ০২:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ছাত্রী নিপীড়নে বাকৃবির শিক্ষার্থীকে মারধর
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) এক ছাত্রীকে নিপীড়নের অভিযোগে মো. ওবাইদুল হক রাব্বি নামে এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের করিডোরে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ওবাইদুল বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষিতত্ত্ব বিভাগের মাস্টার্স ও আশরাফুল হক হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

জানা যায়, সোমবার রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের করিডোরে এক ছাত্রীকে নিপীড়ন করছিলেন ওই ছাত্র। এ সময় অনিক নামের এক শিক্ষার্থী ঘটনাটি দেখে ফেলে। পরে অনিক ও অনিকের বন্ধুরা মিলে অভিযুক্ত ওবাইদুলকে ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের জব্বারের মোড়ে নিয়ে যায়। সেখানে নিপীড়নের অভিযোগ তুলে ওবাইদুলকে মারধর করেন তারা।

এর পর ওবাইদুলকে আশরাফুল হক হলের গেস্টরুমে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখানে প্রক্টরিয়াল বডি উপস্থিত হয়ে আহত ওবাইদুলকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ক্যাম্পে নিয়ে যান।

অভিযুক্ত ওবায়দুল এ নিপীড়নের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ছাত্রী নিপীড়নের সময় অনিক ও তার বন্ধুরা আমাকে দেখে ফেলে মারধর করার পর আমাকে আশরাফুল হক হলের গেস্টরুমে নিয়ে যায়। পরে প্রক্টরিয়াল বডি আমাকে উদ্ধার করে।

এর আগেও ওবাইদুলের বিরুদ্ধে নিপীড়নসহ বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. আজহারুল হক বলেন,  অভিযুক্ত শিক্ষার্থীকে সংশোধনের জন্য তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখার জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। পরবর্তীতে তদন্ত কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী অভিযুক্ত শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন