দীর্ঘ ছুটির পর খুলছে হার্ভার্ড
jugantor
দীর্ঘ ছুটির পর খুলছে হার্ভার্ড

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ জুলাই ২০২০, ১৩:১৫:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার কারণে দীর্ঘ ছুটির পর ফের ক্যাম্পাসের দরজা খোলার কথা ভাবছে হার্ভার্ড ও প্রিন্সটনের মতো মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়গুলো।


তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দ্বার খুললেও একসঙ্গে ক্লাসরুমে ফেরা হবে না ছাত্রছাত্রীদের। হার্ভার্ড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, স্নাতক স্তরে একমাত্র প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দিয়ে মোট ৪০ শতাংশ ছাত্রছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার অনুমতি দেয়া হবে। খবর বিবিসির।


একই ঘোষণা দিয়েছে প্রিন্সটনও। একই সঙ্গে ১০ শতাংশ টিউশন ফি মওকুফ করার ঘোষণাও দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।


আগামী বেশ কিছু দিনের জন্য অন্তত ক্যাম্পাসে যথাসম্ভব কম সমাগমের দিকেই নজর দিচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো।


হার্ভার্ড জানিয়েছে, এবার থেকে সব কোর্সই অনলাইনে পড়ানো হবে। প্রিন্সটনও বেশিরভাগ পঠনই অনলাইনে করাবে।


বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টোফার এল ইসগ্রুবার বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে আগামী বেশ কয়েক দিন এ পদ্ধতিই অনুসরণ করে চলতে হবে আমাদের।


ক্যাম্পাসে ফেরার পর প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীকে বাধ্যতামূলকভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হবে বলে জানিয়েছে দুই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষই।


এ ছাড়া সেমিস্টারজুড়ে বিশেষ নজর দেয়া হবে স্বাস্থ্য পরীক্ষার ওপর। সবাই যাতে বিধি মেনে চলেন তার জন্য ক্যাম্পাসে ফেরা মাত্র সব ছাত্রছাত্রীকে দিয়ে ‘সোশ্যাল কনট্র্যাক্ট’-এ সই করিয়ে নেয়া হবে বলেও জানিয়েছে প্রিন্সটন।


ক্যাম্পাসের ভেতরে সর্বক্ষণ মাস্ক পরাও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বিশেষ জোর দেয়া হবে দূরত্ববিধি মেনে চলার ওপরও।


এদিকে হার্ভার্ড কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছে, ছাত্রাবাসের মধ্যেই কোয়ারেন্টিনের জন্য আলাদা জায়গার ব্যবস্থা রাখছে তারা।

দীর্ঘ ছুটির পর খুলছে হার্ভার্ড

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ জুলাই ২০২০, ০১:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার কারণে দীর্ঘ ছুটির পর ফের ক্যাম্পাসের দরজা খোলার কথা ভাবছে হার্ভার্ড ও প্রিন্সটনের মতো মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। 


তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দ্বার খুললেও একসঙ্গে ক্লাসরুমে ফেরা হবে না ছাত্রছাত্রীদের। হার্ভার্ড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, স্নাতক স্তরে একমাত্র প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দিয়ে মোট ৪০ শতাংশ ছাত্রছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার অনুমতি দেয়া হবে। খবর বিবিসির।


একই ঘোষণা দিয়েছে প্রিন্সটনও। একই সঙ্গে ১০ শতাংশ টিউশন ফি মওকুফ করার ঘোষণাও দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।


আগামী বেশ কিছু দিনের জন্য অন্তত ক্যাম্পাসে যথাসম্ভব কম সমাগমের দিকেই নজর দিচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। 


হার্ভার্ড জানিয়েছে, এবার থেকে সব কোর্সই অনলাইনে পড়ানো হবে। প্রিন্সটনও বেশিরভাগ পঠনই অনলাইনে করাবে। 


বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টোফার এল ইসগ্রুবার বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে আগামী বেশ কয়েক দিন এ পদ্ধতিই অনুসরণ করে চলতে হবে আমাদের।


ক্যাম্পাসে ফেরার পর প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীকে বাধ্যতামূলকভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হবে বলে জানিয়েছে দুই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষই। 


এ ছাড়া সেমিস্টারজুড়ে বিশেষ নজর দেয়া হবে স্বাস্থ্য পরীক্ষার ওপর। সবাই যাতে বিধি মেনে চলেন তার জন্য ক্যাম্পাসে ফেরা মাত্র সব ছাত্রছাত্রীকে দিয়ে ‘সোশ্যাল কনট্র্যাক্ট’-এ সই করিয়ে নেয়া হবে বলেও জানিয়েছে প্রিন্সটন। 


ক্যাম্পাসের ভেতরে সর্বক্ষণ মাস্ক পরাও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বিশেষ জোর দেয়া হবে দূরত্ববিধি মেনে চলার ওপরও। 


এদিকে হার্ভার্ড কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছে, ছাত্রাবাসের মধ্যেই কোয়ারেন্টিনের জন্য আলাদা জায়গার ব্যবস্থা রাখছে তারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন