কোটা সংস্কারের দাবি

ক্লাস বর্জন করে আন্দোলনকারীদের ফের সড়ক অবরোধ

প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল ২০১৮, ১৪:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

  বেরোবি প্রতিনিধি

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারসহ পাঁচ দফা দাবিতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়সহ (বেরোবি) বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে রংপুর- ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করেছেন।

সোমবার বেলা ১১টায়  সড়ক অবরোধ করে তারা সেখানে অবস্থান নেন। এ ছাড়া বিভিন্ন একাডেমিক ভবনের প্রবেশপথে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা অবস্থান নেওয়ায় কোনো বিভাগে ক্লাস হয়নি। 

এর আগে রোববার বিকাল ৪টা থেকে ৮টা এবং রাত দেড়টায় দুই দফা মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। পরে রাত ১০টায় বেরোবির সব  একাডেমিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হল- কোটা সংস্কার করে ১০ শতাংশে নামিয়ে আনা, কোটার শূন্যপদগুলোতে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ, চাকরি পরীক্ষায় কোটা সুবিদা একবারের বেশি নয়, কোটায় বিশেষ নিয়োগ বন্ধ এবং চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা অভিন্ন করতে হবে।

ক্যাম্পাস সূত্র জানায়, সোমবার সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের প্রবেশপথগুলোতে অবস্থান নেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এ সময় কোনো শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। এর পর সোয়া ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। 

মিছিলটি বিভিন্ন একাডেমিক ভবনের সামনে দিয়ে লালবাগ প্রদক্ষিণ করে রংপুর প্রবেশপথ  ঢাকা- রংপুর সড়ক অবরোধ করে চারুকলা অনুষদে যায়। এ সময় শিক্ষার্থীরা দলে দলে মিছিলে যোগ দেন। পরে মড়ার্ন মোড়ে ২ ঘণ্টা ধরে সড়ক অবরোধ হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে আছেন শিক্ষার্থীরা। এতে রাস্তার দুপাশে হঠাৎ যানজট সৃষ্টি হয়। 

আন্দোলনের রংপুর বিভাগীয় সমন্বয়ক ওয়াদুদ সাদমান বলেন, আন্দোলনের অংশ হিসেবে আজ ক্লাস বর্জন করা হয়েছে। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি পালন করব। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা মহাসড়ক অবরোধ করব।

রংপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু মারুফ যুগান্তরকে বলেন, শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করতে বলা হয়েছে যেন সাধারণ মানুষের ভোগান্তি না হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে কোটা সংস্কারসহ পাঁচ দফা দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছেন শিক্ষার্থীরা।