ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা আখতারকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ 
jugantor
ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা আখতারকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ 

  ঢাবি প্রতিনিধি   

১৩ এপ্রিল ২০২১, ২১:৫৩:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

আখতার হোসাইন

ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি ও ডাকসুর সাবেক সমাজ সেবা সম্পাদক আখতার হোসাইনকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে শাহবাগ থানা পুলিশের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সামনে থেকে আখতারকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছে ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা আদিব।

ঘটনার সময় উপস্থিত ছাত্র অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক আরিফুল ইসলাম আদিব যুগান্তরকে বলেন, আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র অধিকার পরিষদের পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে আমরা চার পাঁচজন হেটে চাঁনখারপুলের দিকে যাচ্ছিলাম। ঢাকা মেডিকেলের ইমার্জেন্সি গেটের অপরদিকে আমাদের গতি রোধ করে শাহবাগ থানার এসআই রইস। স্যার আপনার সঙ্গে কথা বলবে জানিয়ে পুলিশের গাাড়িতে তুলে ফেলে আখতারকে। এ সময় আমাদের দুই তিনজনকে তোলার জন্য চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

রাত পৌনে ৯টার দিকে শাহবাগ থানার ডিউটি অফিসার যুগান্তরকে জানান, আখতারকে তুলে আনার বিষয়টি তার জানা নেই। এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলতে পরামর্শ দেন তিনি।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ওসি মামুন অর রশিদ ও এসআই রইস উদ্দিনকে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও তারা কল রিসিভ করেননি।

ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা আখতারকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ 

 ঢাবি প্রতিনিধি  
১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আখতার হোসাইন
আখতার হোসাইন। ফাইল ছবি

ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি ও ডাকসুর সাবেক সমাজ সেবা সম্পাদক আখতার হোসাইনকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে শাহবাগ থানা পুলিশের বিরুদ্ধে। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সামনে থেকে আখতারকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছে ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা আদিব। 

ঘটনার সময় উপস্থিত ছাত্র অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক আরিফুল ইসলাম আদিব যুগান্তরকে বলেন, আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র অধিকার পরিষদের পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে আমরা চার পাঁচজন হেটে চাঁনখারপুলের দিকে যাচ্ছিলাম। ঢাকা মেডিকেলের  ইমার্জেন্সি গেটের অপরদিকে আমাদের গতি রোধ করে শাহবাগ থানার এসআই রইস।  স্যার আপনার সঙ্গে কথা বলবে জানিয়ে পুলিশের গাাড়িতে তুলে ফেলে আখতারকে।  এ সময় আমাদের দুই তিনজনকে তোলার জন্য চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।  

রাত পৌনে ৯টার দিকে শাহবাগ থানার ডিউটি অফিসার যুগান্তরকে জানান, আখতারকে তুলে আনার বিষয়টি তার জানা নেই। এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলতে পরামর্শ দেন তিনি। 

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ওসি মামুন অর রশিদ ও এসআই রইস উদ্দিনকে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও তারা কল রিসিভ করেননি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন