বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষাবোর্ডের ১৯তম পরীক্ষার ফল প্রকাশ
jugantor
বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষাবোর্ডের ১৯তম পরীক্ষার ফল প্রকাশ

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৭ মে ২০২১, ০১:২৫:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষাবোর্ডের ১৯তম কেন্দ্রীয় পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর মাতুয়াইল আমান সিটিস্থ বোর্ডের ঢাকা অফিসে ফলাফল ঘোষণা করেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মুফতি হেমায়েতুল্লাহ কাসেমী।

এবছর মোট ১২টি বিভাগে (কাফিয়া, কুদূরী, মীযান পুরুষ, মীযান মহিলা, উর্দু পুরুষ, উর্দু মহিলা, কিরাআতুল কোরআন দ্বিতীয়, কিরাআতুল কোরআন খাছ, হিফজ ৫-১০-২০ ও ৩০ পাড়া গ্রুপ) মুমতাজ ২৭৮৭, জাইয়্যিদ জিদ্দান ২১২৮ জন শিক্ষার্থী মেধাতালিকায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। সর্বমোট পাশের হার ৯৫.৮৪%।

ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে বরিশাল সদর দপ্তর চরমোনাই থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও ইসলামী আন্দোলনের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম, নির্বাহী চেয়ারম্যান মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ নূরুল করীম কাসেমী, বোর্ডের মহাসচিব আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী ও সচিব মো. শামসুদ্দোহা তালুকদার।

এ সময় চরমোনাই পীর বলেন, ‘দেশের বিরাজমান বাস্তবতা লক্ষ্য করলে দেখা যায় একদিকে, শিক্ষার হার বাড়ছে। অপরদিকে পাল্লা দিয়ে সুদ, ঘুষ, দুর্নীতি, দুঃশাসন, জুলুম ও নির্যাতন বাড়ছে। এজন্যই দ্বীনি শিক্ষা ব্যাপকভাবে বিস্তারের প্রয়োজন। কারণ একজন মানুষ সত্যিকারের মানুষই হয় তাকওয়া বা আল্লাহভীতি অর্জনের মাধ্যমে। আর দ্বীনি মাদরাসাগুলোর প্রধান উদ্দেশ্যই হচ্ছে তাকওয়াবান মানুষ গড়া। তাকওয়াভিত্তিক সমাজ গড়ে তোলা। মূলত এ সুমহান স্বপ্নকে সামনে রেখেই গড়ে তোলা হয়েছে বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষাবোর্ড।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মুফতি মিজানুর রহমান কাসেমী, মুফতি মঈনুদ্দীন খান তানভীর, মুফতি আব্দুল আজিজ কাসেমী, মুফতি মামুনুল হক কাসেমি আল আজহারি, মুফতি মাসুমবিল্লাহ ফেরদাউস কাসেমী, মুফতি জহিরুল ইসলাম কাসেমী, মুফতি সানাউল্লাহ কাসেমী।

বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষাবোর্ডের ১৯তম পরীক্ষার ফল প্রকাশ

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৭ মে ২০২১, ০১:২৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষাবোর্ডের ১৯তম কেন্দ্রীয় পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। 
 
বৃহস্পতিবার রাজধানীর মাতুয়াইল আমান সিটিস্থ বোর্ডের ঢাকা অফিসে ফলাফল ঘোষণা করেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মুফতি হেমায়েতুল্লাহ কাসেমী। 

এবছর মোট ১২টি বিভাগে (কাফিয়া, কুদূরী, মীযান পুরুষ, মীযান মহিলা, উর্দু পুরুষ, উর্দু মহিলা, কিরাআতুল কোরআন দ্বিতীয়, কিরাআতুল কোরআন খাছ, হিফজ ৫-১০-২০ ও ৩০ পাড়া গ্রুপ) মুমতাজ ২৭৮৭, জাইয়্যিদ জিদ্দান ২১২৮ জন শিক্ষার্থী মেধাতালিকায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। সর্বমোট পাশের হার ৯৫.৮৪%।

ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে বরিশাল সদর দপ্তর চরমোনাই থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও ইসলামী আন্দোলনের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম, নির্বাহী চেয়ারম্যান মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ নূরুল করীম কাসেমী, বোর্ডের মহাসচিব আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী ও সচিব মো. শামসুদ্দোহা তালুকদার।

এ সময় চরমোনাই পীর বলেন, ‘দেশের বিরাজমান বাস্তবতা লক্ষ্য করলে দেখা যায় একদিকে, শিক্ষার হার বাড়ছে। অপরদিকে পাল্লা দিয়ে সুদ, ঘুষ, দুর্নীতি, দুঃশাসন, জুলুম ও নির্যাতন বাড়ছে। এজন্যই দ্বীনি শিক্ষা ব্যাপকভাবে বিস্তারের প্রয়োজন। কারণ একজন মানুষ সত্যিকারের মানুষই হয় তাকওয়া বা আল্লাহভীতি অর্জনের মাধ্যমে। আর দ্বীনি মাদরাসাগুলোর প্রধান উদ্দেশ্যই হচ্ছে তাকওয়াবান মানুষ গড়া। তাকওয়াভিত্তিক সমাজ গড়ে তোলা। মূলত এ সুমহান স্বপ্নকে সামনে রেখেই গড়ে তোলা হয়েছে বাংলাদেশ কোরআন শিক্ষাবোর্ড। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মুফতি মিজানুর রহমান কাসেমী, মুফতি মঈনুদ্দীন খান তানভীর, মুফতি আব্দুল আজিজ কাসেমী, মুফতি মামুনুল হক কাসেমি আল আজহারি, মুফতি মাসুমবিল্লাহ ফেরদাউস কাসেমী, মুফতি জহিরুল ইসলাম কাসেমী, মুফতি সানাউল্লাহ কাসেমী।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন