কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীকে জাবির হল থেকে বের করে দিল ছাত্রলীগ

  জাবি প্রতিনিধি ৩০ এপ্রিল ২০১৮, ২১:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী এক সাংস্কৃতিক কর্মীকে মারধর করে হল থেকে বের করার অভিযোগ ওঠেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে।

মারধরের শিকার জিয়াউল হক জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্য তত্ত্ব বিভাগের ৪২ ব্যাচের ও শহীদ রফিক জব্বার হলের আবাসিক ছাত্র। তিনি বেঙ্গল সাংস্কৃতিক সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।

একই হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ও শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অভিষেক মণ্ডল জিয়াউল হককে মারধর করে হল থেকে বের করে দিয়েছে।

জানা যায়, শনিবার রাতে হলের নিচের দোকানে নাস্তা করতে আসলে জিয়াকে দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে মারধর করে অভিষেক মণ্ডল। এ সময় ভুক্তভোগীর সঙ্গে থাকা একটি মোবাইল ফোন অভিষেকের অনুসারীরা ছিনিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে জিয়া।

জিয়াউল হক বলেন, এর আগে ৯ এপ্রিল কোটা সংস্কারের আন্দোলন চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে প্রকাশ্যে আমাকে প্রথমবারের মতো মারধর করে অভিষেক। ওই দিনই আমাকে হল থেকে বের হওয়ার জন্য হুমকি দেয়া হয়। তারপর আমি আর হলে না থাকলেও গত শনিবার হলে অবস্থান করলে অভিষেক আবারো আমাকে বেধড়ক মারধর করে হল থেকে বের করে দেয়েছে।’

৯ এপ্রিলের মারধরের ঘটনার বিচার চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনে কাছে অভিযোগ করেছিল বলে জানা যায়।

তবে অভিষেকের দাবি, জিয়া ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তাই তাকে মারধর করা হয়েছে। এছাড়া তার দ্বারা হলের ক্ষতি হওয়ার আশংকা থাকায় তাকে হলে থাকতে দেয়া হবে না। আর ৯ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে সে পুলিশের লক্ষ্য করে ঢিল ছোঁড়ায় তাকে ধাক্কা দিয়ে চলে যেতে বলেছিলাম।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু সুফিয়ান চঞ্চল যুগান্তরকে বলেন, ‘জিয়া ছাত্রদলের রাজনীতিতে জড়িত হয়ে ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করায় পায়তারা করছে। তাই তাকে হল বুঝিয়ে হল থেকে বের হতে বলা হয়েছে।’

শহীদ রফিক জব্বার হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক সোহেল আহমেদ যুগান্তরকে বলেন, ‘বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। সংশিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।’

ঘটনাপ্রবাহ : কোটাবিরোধী আন্দোলন ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter