৫ অক্টোবর ঢাবির হল খুলছে
jugantor
৫ অক্টোবর ঢাবির হল খুলছে

  ঢাবি প্রতিনিধি  

১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:০৭:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

আগামী ৫ অক্টোবর স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খোলার সুপারিশ করা হয়েছে। বুধবার প্রভোস্ট স্টান্ডিং কমিটির সভায় এই সুপারিশ করা হয়। এতেসভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

প্রভোস্টদের সুপারিশ অনুযায়ী, আগামী ৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে যেসব শিক্ষার্থীরা করোনা প্রতিষেধক এক ডোজ টিকা নিয়েছেন এবং হলের বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারবেন, তাদেরকে হলে উঠতে দেওয়া হবে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সুপারিশের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বৈঠক শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী সাংবাদিকদেরবলেন, আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে স্নাতক শেষবর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী, যারা অন্তত এক ডোজ টিকা নিয়েছে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি ও বিভাগীয় সেমিনার ব্যবহার করতে পারবে। এছাড়া ৫ অক্টোবর থেকে এক ডোজ টিকার সনদ ও হলের বৈধ কাগজপত্র দেখিয়ে আবাসিক হলে স্নাতক শেষবর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীরা উঠতে পারবে।

৫ অক্টোবর ঢাবির হল খুলছে

 ঢাবি প্রতিনিধি 
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আগামী ৫ অক্টোবর স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খোলার সুপারিশ করা হয়েছে। বুধবার প্রভোস্ট স্টান্ডিং কমিটির সভায় এই সুপারিশ করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

প্রভোস্টদের সুপারিশ অনুযায়ী, আগামী ৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে যেসব শিক্ষার্থীরা করোনা প্রতিষেধক এক ডোজ টিকা নিয়েছেন এবং হলের বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারবেন, তাদেরকে হলে উঠতে দেওয়া হবে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সুপারিশের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বৈঠক শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী সাংবাদিকদের বলেন, আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে স্নাতক শেষবর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী, যারা অন্তত এক ডোজ টিকা নিয়েছে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি ও বিভাগীয় সেমিনার ব্যবহার করতে পারবে। এছাড়া ৫ অক্টোবর থেকে এক ডোজ টিকার সনদ ও হলের বৈধ কাগজপত্র দেখিয়ে আবাসিক হলে স্নাতক শেষবর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীরা উঠতে পারবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন