শাবিপ্রবিতে উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনের কুশপুত্তলিকা দাহ
jugantor
শাবিপ্রবিতে উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনের কুশপুত্তলিকা দাহ

  বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, শাবি  

২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৫:৪০:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের কুশপুত্তলিকা দাহ করেছেন।

দাহ করার আগে শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা নিয়ে অনশনস্থল হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্ত মঞ্চ পর্যন্ত মিছিল করেন।

এরপর মুক্ত মঞ্চেই তার কুশপুত্তলিকা দাহ করেন শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

এর আগে শনিবার বিকালে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে প্রতিকী মরদেহ নিয়ে কাফন মিছিল করেন শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বর থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার একই স্থানে এসে শেষ হয়। এসময় তারা সেখানে কিছু সময় অবস্থান করেন।

এরপর রাত ৯টার দিকে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেন শিক্ষার্থীর।

উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের অনশনে ইতোমধ্যেই পার হয়েছে দীর্ঘ সময়। ফলে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৫ জন শিক্ষার্থী। তারা নগরীর ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

শাবিপ্রবিতে উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনের কুশপুত্তলিকা দাহ

 বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, শাবি 
২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৫:৪০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের  কুশপুত্তলিকা দাহ করেছেন। 

দাহ করার আগে শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা নিয়ে অনশনস্থল হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্ত মঞ্চ পর্যন্ত  মিছিল করেন।

এরপর মুক্ত মঞ্চেই তার কুশপুত্তলিকা দাহ করেন শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন। 

এর আগে শনিবার বিকালে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে প্রতিকী মরদেহ নিয়ে কাফন মিছিল করেন শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বর থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার একই স্থানে এসে শেষ হয়। এসময় তারা সেখানে কিছু সময় অবস্থান করেন।

এরপর রাত ৯টার দিকে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেন শিক্ষার্থীর। 

উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের অনশনে ইতোমধ্যেই পার হয়েছে দীর্ঘ সময়। ফলে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। 

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৫ জন শিক্ষার্থী। তারা নগরীর ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন