আলসারে আক্রান্ত হয়ে জবি ছাত্রের মৃত্যু
jugantor
আলসারে আক্রান্ত হয়ে জবি ছাত্রের মৃত্যু

  জবি প্রতিনিধি   

২৩ জুন ২০২২, ০৫:০৮:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

আলসারে আক্রান্ত হয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ছাত্র আশরাফুল ইসলাম মারা গেছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

আশরাফুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ ২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের তাজমহল রোডে। তার বয়স হয়েছিল ২৩ বছর।

সহপাঠীরা জানান, বুধবার বিকালে তার বুকে প্রচণ্ড ব্যথা শুরু হলে ওষুধ খাওয়ানো হয়। ওষুধ খাওয়ার পর তার নাক ও মুখ দিয়ে রক্তপাত শুরু হয়। পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান আশরাফুল। এছাড়া তিনি প্রায় তিন-চার মাস ধরে আলসারে ভুগছিলেন।

তারা আরও জানান, আশরাফুল মঙ্গলবারও তাদের সঙ্গে ক্লাস করেছে। তাকে দেখে অসুস্থ মনে হয়নি।

আশরাফুলের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে তার বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে। সহপাঠীরা তার হঠাৎ চলে যাওয়া কোনোভাবে মেনে নিতে পারছেন না।

ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মহিউদ্দিন বলেন, আমি মঙ্গলবারও তার ক্লাস নিয়েছি। আমি জানতাম না সে অসুস্থ। আমি খুবই মর্মাহত ও শোকাহত আশরাফুলের মৃত্যুতে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক এবং ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

আলসারে আক্রান্ত হয়ে জবি ছাত্রের মৃত্যু

 জবি প্রতিনিধি  
২৩ জুন ২০২২, ০৫:০৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আলসারে আক্রান্ত হয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ছাত্র আশরাফুল ইসলাম মারা গেছেন। 

বুধবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। 

আশরাফুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ ২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের তাজমহল রোডে। তার বয়স হয়েছিল ২৩ বছর।

সহপাঠীরা জানান, বুধবার বিকালে তার বুকে প্রচণ্ড ব্যথা শুরু হলে ওষুধ খাওয়ানো হয়। ওষুধ খাওয়ার পর তার নাক ও মুখ দিয়ে রক্তপাত শুরু হয়। পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান আশরাফুল। এছাড়া তিনি প্রায় তিন-চার মাস ধরে আলসারে ভুগছিলেন। 

তারা আরও জানান, আশরাফুল মঙ্গলবারও তাদের সঙ্গে ক্লাস করেছে। তাকে দেখে অসুস্থ মনে হয়নি। 

আশরাফুলের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে তার বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে। সহপাঠীরা তার হঠাৎ চলে যাওয়া কোনোভাবে মেনে নিতে পারছেন না। 

ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মহিউদ্দিন বলেন, আমি মঙ্গলবারও তার ক্লাস নিয়েছি। আমি জানতাম না সে অসুস্থ। আমি খুবই মর্মাহত ও শোকাহত আশরাফুলের মৃত্যুতে। 

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক এবং ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন