সম্মাননা পাগড়ি পাচ্ছেন চৌধুরীপাড়া মাদ্রাসার ১ হাজার শিক্ষার্থী
jugantor
সম্মাননা পাগড়ি পাচ্ছেন চৌধুরীপাড়া মাদ্রাসার ১ হাজার শিক্ষার্থী

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ নভেম্বর ২০২২, ২১:০৪:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সম্মাননা পাগড়ি পাচ্ছেন চৌধুরীপাড়া মাদ্রাসার ১ হাজার শিক্ষার্থী

রাজধানী ঢাকার চৌধুরীপাড়ায় অবস্থিত শেখ জনুরুদ্দীন (রহ.) দারুল কুরআন মাদ্রাসার ৩০ সালা সম্মেলন বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে।

দুদিনব্যাপী এসম্মেলনে ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দের মুহতামিম আল্লামা আবুল কাসেম নোমানী, নায়েবে মুহতামিম মাওলানা রাশেদ আজমী, বেফাকের সভাপতি আল্লামা মাহমুদুল হাসান, জামিয়া ইকরার মহাপরিচালক আল্লামা ফরীদ উদ্দিন মাসউদসহ দেশের শীর্ষ আলেমরা উপস্থিত থাকবেন।

মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক কাসেমী বলেন, গত ৩০ বছরে যারা এ মাদ্রাসা থেকে সফলভাবে উর্ত্তীণ হয়েছেন, তাদের সবাইকে সম্মাননা পাগড়ি ও সনদ প্রদান করা হবে।

জানা গেছে, ইতোমধ্যে প্রায় ১ হাজার ফুযালা (উর্ত্তীণ শিক্ষার্থী) নিবন্ধন করেছেন।

১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে অনুষ্ঠান শুরু হবে। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক কাসেমী। প্রথম দিনের উদ্বোধনী বক্তব্য দিবেন ইসলামিকরিসার্চ সেন্টার বসুন্ধরার মহাপরিচালক মুফতি আরশাদ রহমানী। বক্তব্য দিবেন দারুল উলূম বনশ্রীর শায়খুল হাদিস মাওলানা আসআদ আল হোসাইনী।

প্রথম দিন কয়েকটি অধিবেশনে পাগড়ি প্রদান করা হবে। পাগড়ি পাবেন ১৯৯২ সাল থেকে ২০১৩ সালের ফুযালারা।

বৃস্পতিবার দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম আল্লামা রাশেদ আজমীসহ দেশের প্রতিনিধিত্বশীল আলেমরা গুরুত্বপূর্ণ নসিহত পেশ করবেন। প্রথম দিনের সমাপনী বক্তব্য দিবেন মুহিউস সুন্নাহ আল্লামা মাহমুদুল হাসান।

২ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ৯টায় সম্মেলন শুরু হবে। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন মাদরাসার নায়েবে মুহতামিম মাওলানা খুরশীদ আলম কাসেমী। উদ্বোধনী বক্তব্য দিবেন বেফাকের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক।

২ ডিসেম্বর পাগড়ি পাবে ২০১৪ সাল থেকে শুরু করে ২০২২ সালের ফুযালারা। দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম আল্লামা রাশেদ আজমী চৌধুরীপাড়ার মসজিদ-ই-নূরে জুমার নামাজ পড়াবেন। সেদিন কয়েকটি অধিবেশনে সম্মেলন চলবে।

আল্লামা ফরীদ উদ্দিন মাসউদ ও প্রখ্যাত মুফাসসির মাওলানা নুরুল ইসলাম ওলিপুরীর বয়ানের মাধ্যমে সম্মেলনের সমাপ্তি হবে।

সম্মেলন উপলক্ষ্যে মসজিদ প্রাঙনে ইসলামিক বইমেলা ও রক্তদান কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনার মাধ্যমে মুনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া শনিবার বাদ ফজর শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদ্রাসায় বুখারী শরীফের দরস প্রদান করবেন আল্লামা রাশেদ আজমী।

সম্মেলনের সভাপতি মসজিদ-ই-নূর ও শেখ জনুরুদ্দীন (রহ.) দারুল কুরআন মাদরাসার মুতাওয়াল্লী ইমাদুদ্দীন নোমান সম্মেলন বাস্তবায়নে সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সম্মাননা পাগড়ি পাচ্ছেন চৌধুরীপাড়া মাদ্রাসার ১ হাজার শিক্ষার্থী

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৯:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সম্মাননা পাগড়ি পাচ্ছেন চৌধুরীপাড়া মাদ্রাসার ১ হাজার শিক্ষার্থী
চৌধুরীপাড়ার শেখ জনুরুদ্দীন (রহ.) দারুল কুরআন মাদ্রাসা।

রাজধানী ঢাকার চৌধুরীপাড়ায় অবস্থিত শেখ জনুরুদ্দীন (রহ.) দারুল কুরআন মাদ্রাসার ৩০ সালা সম্মেলন বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে। 

দুদিনব্যাপী এ সম্মেলনে ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দের মুহতামিম আল্লামা আবুল কাসেম নোমানী, নায়েবে মুহতামিম মাওলানা রাশেদ আজমী, বেফাকের সভাপতি আল্লামা মাহমুদুল হাসান, জামিয়া ইকরার মহাপরিচালক আল্লামা ফরীদ উদ্দিন মাসউদসহ দেশের শীর্ষ আলেমরা উপস্থিত থাকবেন।

মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক কাসেমী বলেন, গত ৩০ বছরে যারা এ মাদ্রাসা থেকে সফলভাবে উর্ত্তীণ হয়েছেন, তাদের সবাইকে সম্মাননা পাগড়ি ও সনদ প্রদান করা হবে। 

জানা গেছে, ইতোমধ্যে প্রায় ১ হাজার ফুযালা (উর্ত্তীণ শিক্ষার্থী) নিবন্ধন করেছেন। 

১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে অনুষ্ঠান শুরু হবে। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক কাসেমী। প্রথম দিনের উদ্বোধনী বক্তব্য দিবেন ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বসুন্ধরার মহাপরিচালক মুফতি আরশাদ রহমানী। বক্তব্য দিবেন দারুল উলূম বনশ্রীর শায়খুল হাদিস মাওলানা আসআদ আল হোসাইনী।

প্রথম দিন কয়েকটি অধিবেশনে পাগড়ি প্রদান করা হবে। পাগড়ি পাবেন ১৯৯২ সাল থেকে ২০১৩ সালের ফুযালারা।

বৃস্পতিবার দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম আল্লামা রাশেদ আজমীসহ দেশের প্রতিনিধিত্বশীল আলেমরা গুরুত্বপূর্ণ নসিহত পেশ করবেন। প্রথম দিনের সমাপনী বক্তব্য দিবেন মুহিউস সুন্নাহ আল্লামা মাহমুদুল হাসান।

২ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ৯টায় সম্মেলন শুরু হবে। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন মাদরাসার নায়েবে মুহতামিম মাওলানা খুরশীদ আলম কাসেমী। উদ্বোধনী বক্তব্য দিবেন বেফাকের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক।

২ ডিসেম্বর পাগড়ি পাবে ২০১৪ সাল থেকে শুরু করে ২০২২ সালের ফুযালারা। দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম আল্লামা রাশেদ আজমী চৌধুরীপাড়ার মসজিদ-ই-নূরে জুমার নামাজ পড়াবেন। সেদিন কয়েকটি অধিবেশনে সম্মেলন চলবে। 

আল্লামা ফরীদ উদ্দিন মাসউদ ও প্রখ্যাত মুফাসসির মাওলানা নুরুল ইসলাম ওলিপুরীর বয়ানের মাধ্যমে সম্মেলনের সমাপ্তি হবে।

সম্মেলন উপলক্ষ্যে মসজিদ প্রাঙনে ইসলামিক বইমেলা ও রক্তদান কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনার মাধ্যমে মুনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। 

এছাড়া শনিবার বাদ ফজর শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদ্রাসায় বুখারী শরীফের দরস প্রদান করবেন আল্লামা রাশেদ আজমী।

সম্মেলনের সভাপতি মসজিদ-ই-নূর ও শেখ জনুরুদ্দীন (রহ.) দারুল কুরআন মাদরাসার মুতাওয়াল্লী ইমাদুদ্দীন নোমান সম্মেলন বাস্তবায়নে সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর