যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশের পর জাবির সেই সহকারী প্রক্টরের পদত্যাগ
jugantor
যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশের পর জাবির সেই সহকারী প্রক্টরের পদত্যাগ

  জাবি প্রতিনিধি  

০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:৩৮:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

যুগান্তরে ধারাবাহিক সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে পদত্যাগ করেছেন ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই সহকারী প্রক্টর মাহমুদুর রহমান জনি।

এছাড়াও তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ তদন্তে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক মো. আনোয়ার খসরু পারভেজকে প্রধান করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি প্রাথমিক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- বাংলা বিভাগের অধ্যাপক নাজমুল হাসান তালুকদার, গণিত বিভাগের অধ্যাপক জেসমীন আখতার, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক উম্মে সায়কা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (আইন) মো. মাহতাব-উজ-জাহিদকে সদস্য সচিব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ।

তিনি বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষক জনি সহকারী প্রক্টরের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। আর উত্থাপিত অভিযোগগুলো তদন্ত করতে আনোয়ার খসরু পারভেজকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি প্রাথমিক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৭ নভেম্বর যুগান্তর অনলাইনে ‘ছাত্রীদের সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগ জাবির সহকারী প্রক্টরের বিরুদ্ধে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে আলোড়ন সৃষ্টি হয়। এরই প্রেক্ষিতে ১লা ডিসেম্বর ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ’ ব্যানারে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ।

এরপর ৫ ডিসেম্বর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে অভিযোগের তদন্ত ও শাস্তি দাবি করে জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোট। ৬ ডিসেম্বর অভিযুক্ত শিক্ষককে ‘চরিত্রহীন ও লম্পট’ আখ্যা দিয়ে অব্যাহতি চেয়ে মানববন্ধন করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশের পর জাবির সেই সহকারী প্রক্টরের পদত্যাগ

 জাবি প্রতিনিধি 
০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুগান্তরে ধারাবাহিক সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে পদত্যাগ করেছেন ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই সহকারী প্রক্টর মাহমুদুর রহমান জনি।

এছাড়াও তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ তদন্তে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক মো. আনোয়ার খসরু পারভেজকে প্রধান করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি প্রাথমিক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- বাংলা বিভাগের অধ্যাপক নাজমুল হাসান তালুকদার, গণিত বিভাগের অধ্যাপক জেসমীন আখতার, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক উম্মে সায়কা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (আইন) মো. মাহতাব-উজ-জাহিদকে সদস্য সচিব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ।

তিনি বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষক জনি সহকারী প্রক্টরের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। আর উত্থাপিত অভিযোগগুলো তদন্ত করতে আনোয়ার খসরু পারভেজকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি প্রাথমিক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৭ নভেম্বর যুগান্তর অনলাইনে ‘ছাত্রীদের সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগ জাবির সহকারী প্রক্টরের বিরুদ্ধে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে আলোড়ন সৃষ্টি হয়। এরই প্রেক্ষিতে ১লা ডিসেম্বর ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ’ ব্যানারে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ।

এরপর ৫ ডিসেম্বর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে অভিযোগের তদন্ত ও শাস্তি দাবি করে জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোট। ৬ ডিসেম্বর অভিযুক্ত শিক্ষককে ‘চরিত্রহীন ও লম্পট’ আখ্যা দিয়ে অব্যাহতি চেয়ে মানববন্ধন করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন