ঢাবি ছাত্র তারিকুলের মুক্তি দাবি

‘আমার ছেলে লাইব্রেরিতে পড়তে গেলে ছাত্রলীগ ধরে থানায় নিয়ে যায়’

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৯ জুলাই ২০১৮, ১৫:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

ঢাবি ছাত্র তারিকুলের মুক্তি দাবি
ছবি: সংগৃহীত

‘আমার ছেলে সেন্ট্রাল লাইব্রেরিতে পড়তে গিয়েছিল, তাকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ধরে শাহবাগ থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করলেও আমাদের জানায়নি। পরে গোপন সূত্রে ছেলের খবর পেয়েছি। ’

এভাবেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ছাত্র তারিকুল ইসলামের গ্রেফতার হওয়ার কথা জানান তার বাবা মো. শফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আমার ছেলে নির্দোষ। তাকে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন। তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রত্যাহার চাইছি। তাকে রিমান্ডে না নিয়ে মুক্তি দিন।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত আইন অনুষদের সামনে তারিকুলের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন করেন তার সহপাঠী ও শিক্ষকরা।

‘আইনের শাসন চাই, মিথ্যা বানোয়াট হিংসাত্মক মামলা প্রত্যাহারসহ তারিকুলের মুক্তি চাই’ ব্যানারে অনুষ্ঠিত এই কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে ছেলের মুক্তির দাবি জানান শফিকুল ইসলাম।

এতে আইন অনুষদের শতাধিক শিক্ষার্থী ‘তারিক কেন ডরাস মিছে, বোনেরা তোর আছে পাশে’, ‘আমার ক্যাম্পাসে আমি অনিরাপদ, প্রশাসন চুপ কেন’, ‘তারিকের নিঃশর্ত মুক্তি চাই’ লেখাসহ বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড নিয়ে হাজির হন।

তারা জানান, গত ৩ জুলাই পুলিশের করা শাহবাগ থানার পৃথক দুটি মামলায় কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা ফারুক হোসেন ও জসিম উদ্দিনের সঙ্গে তারিকুল ইসলামকেও গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ।

পরে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম এই তিন ছাত্রকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, গ্রেফতারের পর তারিকুলসহ ছাত্রদের পুলিশ থানায় নির্যাতন করছে।

এ বিষয়ে আইন বিভাগের ছাত্রী ফাতিমা তাহসিন বলেন, তারিকুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে অথচ পরিবারকেও জানানো হয়নি। প্রমাণ ছাড়াই নির্যাতন করা হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা তারিকুলসহ আটক সবার মুক্তি চেয়েছেন। একইসঙ্গে তারা প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কোটা সংস্কারে দ্রুত প্রজ্ঞাপন জারির দাবি জানিয়েছেন।

মানববন্ধনে শিক্ষকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আইন বিভাগের চেয়ারম্যান নাইমা হক, শিক্ষক অধ্যাপক আসিফ নজরুল, মাহবুবুর রহমান, অর্পিতা শামস, নাজমুজ জামান ভূঁইয়া, প্রিয়াঙ্কা বোস প্রমুখ।

ঘটনাপ্রবাহ : কোটাবিরোধী আন্দোলন ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter