কোটা আন্দোলন: ত্রাসের রাজত্ব ভেঙে দিতে ঢাবি শিক্ষকদের আহ্বান

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৮, ১৩:৩৪ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি হয়েছে অভিযোগ করে তা ভেঙে দিতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষকরা।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে মানববন্ধন  করতে জড়ো হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের চার শতাধিক শিক্ষার্থী।

তাদের সঙ্গে সংহতি জানাতে এসে শিক্ষকরা অন্যায়ের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের দাঁড়াতে উৎসাহ দেন। তাদের আন্দোলন বেগবান করতে বলেন।

এর মধ্যে অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক রুশাদ ফরিদী বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের সাড়া পেয়ে এখানে এসেছি। কারণ তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। নিজেদের ক্যাম্পাসে দাঁড়াতে তারা ভয় পাচ্ছে। এই ক্যাম্পাসে ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি হয়েছে।’

এক পর্যায়ে তিনি বলেন, ‘আমি শিক্ষার্থীদের বলবো, ত্রাসের রাজত্ব ভেঙে দিতে হবে। আমি আশা করি তারা মাঠে নেমে ত্রাসের রাজত্ব ভেঙে দেবে।’

মানববন্ধন থেকে শিক্ষার্থীরা ঢাবিসহ সব ক্যাম্পাসের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হামলার প্রতিবাদ জানান।

তারা হামলাকারীদের বিচার, গ্রেফতারকৃত কোটা আন্দোলনের নেতাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।

মানববন্ধনে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নাহিদ ইসলাম জানান, তার বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মশিউর রহমানকে বিনা অপরাধে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মশিউর কোটা আন্দোলনে গিয়েছিল, এজন্য তাকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নেওয়া হতে পারে না। কারণ কোটা আন্দোলন তো কোনো নিষিদ্ধ আন্দোলন নয়। মশিউরের নামে কোনো অভিযোগ নেই।

নাহিদ আরও বলেন, মশিউরকে হল থেকে ছাত্রলীগের নেতারা তুলে নিয়ে যাওয়ার সাত দিন পর আমরা তার খোঁজ পেয়েছি। আমরা কেউই মশিউরকে ছাড়া ক্লাসে যাইনি, যাবও না।

এই শিক্ষার্থী বলেন, ছাত্রলীগ তাদের ওপর হামলার পর শিক্ষকদেরকও লাঞ্ছিত করেছে। তিনি বলেন, হামলাকারীরা শিক্ষকদের মুখের ওপর আঙুল তুলে তাদের কাছে কৈফিয়ত চেয়েছে। এটি একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, প্রশাসন শুধু তাদের নিরাপত্তা দিতেই ব্যর্থ হয়নি, তারা শিক্ষকদেরও নিরাপত্তা দিতে পারেনি।  এখন ক্যাম্পাসে কেউই আর নিরাপদ নয়।