রাজশাহীতে পাসের হার ৭ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন

প্রকাশ : ১৯ জুলাই ২০১৮, ১৮:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

  রাজশাহী ব্যুরো

ছবি: যুগান্তর

রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় সাত বছরের মধ্যে এবার সর্বনিম্ন পাসের হার ৬৬ দশমিক ৫১ শতাংশ।

এর আগে ২০১৭ সালে রাজশাহীতে পাসের হার ছিল ৭১ দশমিক ৩০ শতাংশ, ২০১৬ সালে ৭৫ দশমিক ৪০, ২০১৫ সালে ৫৫ দশমিক ৫৪, ২০১৪ সালে ৭৮ দশমিক ৫৫, ২০১৩ সালে ৭৭ দশমিক ৬৯ এবং ২০১২ সালে পাসের হার ছিল ৭৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আনারুল হক প্রামাণিক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, বোর্ডে এবার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৪১ হাজার ৫৮৬ জন যাদের মধ্যে পাস করেছে মোট ৯২ হাজার ৫৭৪ জন শিক্ষার্থী। 

বরাবরের মতো এবারও পাসের হারে এগিয়ে মেয়েরা। তবে জিপিএ-৫ পাওয়ায় বরাবরের মতো এগিয়ে ছেলেরা। এবার মেয়েদের পাসের হার ৭২ দশমিক ৬৯ শতাংশ। আর ছেলেদের পাসের হার ৬১ দশমিক ৪০ শতাংশ।

বোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জানান, এ বছর মোট জিপিএ-৫ পাওয়া পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ১৩৮ জন। এদের মধ্যে ২ হাজার ২৩৪ জন ছেলে এবং ১ হাজার ৯০৪ জন মেয়ে।

রাজশাহী বোর্ডে ২০১২ সাল থেকেই পাসের হারে মেয়ে এবং জিপিএ-৫ অর্জনে ছেলেরা এগিয়ে আছে।

সাত বছরের মধ্যে এবারই সর্বোচ্চ ৩৫ হাজার ৩৭ জন পরীক্ষার্থী এক বিষয়ে ফেল করেছেন। 

বোর্ডের ৬টি কলেজ থেকে এবার কোনো পরীক্ষার্থীই পাস করেননি। আর ১৯টি কলেজে পাস করেছেন শতভাগ পরীক্ষার্থী।

এ বছর মোট ৭৫৬টি কলেজের পরীক্ষার্থী রাজশাহী বোর্ডের অধীনে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা ছিল ১৯৮টি। 

২০১২ সালের পর এবারই সর্বোচ্চ ছিল মোট কলেজ এবং পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা। 

বোর্ডের খারাপ ফলাফল নিয়ে শিক্ষাবোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আনারুল হক প্রামাণিক বলেন, এবার ইংরেজি ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে পরীক্ষার্থীরা খারাপ করেছে। খাতার মূল্যায়নেও সর্বোচ্চ কড়াকড়ি ছিল। এ কারণে ফলাফল খারাপ হয়েছে।