আইইউবিতে আন্তর্জাতিক বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ৩ দিনব্যাপী ‘আইইউবি অ্যাসেনশন ২০১৮’ শীর্ষক ইংরেজি বিতর্ক প্রতিযোগিতার হাইস্কুল পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন নেপালের ডিবেট নেটওয়ার্ক দল

তরুন শিক্ষার্থীদের মধ্যে মুক্তবুদ্ধির চর্চা, মেধা বিকাশ এবং ভবিষ্যত নেতৃত্ব সৃষ্টির লক্ষ্যে ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশে (আইইউবি) ‘আইইউবি অ্যাসেনশন ২০১৮’ শীর্ষক তিন দিনের এক আন্তর্জাতিক ইংরেজী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ক্যাম্পাস ২০ থেকে ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ওই বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

গত শনিবার প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্বস্বীকৃত ও সমাদৃত বৃটিশ পার্লামেন্টারী কাঠামোয় ওই বিতর্ক প্রতিযোগিতায় দেশের শীর্ষস্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ছাড়াও ভারত, মালয়েশিয়া, তাইওয়ান ও নেপালের বিভিন্ন স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১৬টি দল অংশগ্রহণ করে।

যুক্তরাজ্য, ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুরের অভিজ্ঞ ও বিশ্বনন্দিত সাবেক বিতার্কিক ও বিচারকরা  প্রতিযেগিতার বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

আন্তর্জাতিক ওই বিতর্ক প্রতিযোগিতায় উন্মুক্ত শ্রেণিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে ভারতের দিল্লি ইউনিভার্সিটি দল এবং রানারআপ হয় হয়েছে মালয়েশিয়ার টেলর ইউনিভার্সিটি দল।

হাইস্কুল পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নেপালের ডিবেট নেটওয়ার্ক দল ও রানার-আপ হয়েছে বাংলাদেশের রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ দল।

নবীণ শ্রেণিতে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশের খুলনা ইউনিভার্সিটি অফ ইঞ্জিনিয়ারিং এ্যান্ড টেকনোলজি দল এবং রানার-আপ হয় নেপালের কাঠমন্ডু ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ ল’ দল ।

আইইউবির বোর্ড অফ ট্রাস্টিজের সাবেক চেয়ারম্যান রাশেদ চৌধুরী, উপাচার্য অধ্যাপক এম ওমর রহমান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মিলান পাগন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার ও প্রাইজমানি প্রদান করেন।

অনুষ্ঠান শেষে সকলের উদ্দ্যেশ্যে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ইংরেজী বিভাগের প্রধান জনাব তৌহিদ বিন মোজাফ্ফর। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিল চ্যানেল আই, ঢাকা ট্রিবিউন ও রেডিও ফুর্তি।

‘আইইউবি অ্যাসেনশন ২০১৮’-এর পৃষ্ঠপোষকতা করেছে এ এএইচ খান এ্যান্ড কোং, ফ্লোমার, নেসক্যাফে, টোটাল ফ্যাশন, হোটেল অরচ্যাডর্ , পাঠাও, ম্যাগি, পেপসি, প্রাণ, অ্যাকোয়াফিনা, আমরা, সেজান, ওয়েল ফুড, স্যানডাস্ট, ওপেন এবং আইইউবি ডিবেট ক্লাব।