সিটি কর্পোরেশনের কাজে আ’লীগ নেতার বাধা

  যুগান্তর রিপোর্ট ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

সিটি কর্পোরেশনের কাজে আ’লীগ নেতার বাধা

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের রাস্তার কাজ চলার সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের এক নেতা কাজে বাধা এবং নির্মাণ শ্রমিকদের মারধর করেন।

অভিযোগ আছে, আওয়ামী লীগের ওই নেতা নেশা করার টাকা চেয়ে কন্ট্রাকটারকে ধাওয়া এবং নির্মাণ শ্রমিকদের মারধর করেন। ফলে কিছু সময়ের জন্য কাজ বন্ধ হয়ে যায়।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত আনুমানিক দুইটার দিকে মোহাম্মদপুর কাটাসুরের পুল পাড়ে রাস্তার কার্পেটিংয়ের কাজ চলার সময় এমন ঘটনা ঘটে।

রাস্তার কাজে বাধা দেন ৩৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ সেন্টু। নির্মাণ শ্রমিকদের অভিযোগ, এসময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের ওই নেতা নিজের 'বোতলের'র টাকা দাবি করেন।

পরে রাতেই স্থানীয় কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজীব ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে পুনরায় কাজ শুরু করেন।

ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল থেকে ফেসবুক লাইভে আসেন তারেকুজ্জামান রাজীব। লাইভে নির্মাণ শ্রমিকরা অভিযোগ করেন, কাজ চলাকানীন সময়ে সেন্টু হঠাৎ এসে গালিগালাজ করেন।

এরপর আওয়ামী লীগের ওই নেতা পেছন থেকে আমাকে একটা ঘুষি মারেন এবং অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন। আমাদের কয়েকজনকে মারধর করে হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে দূরে সরিয়ে দেন।

তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত ৩৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নূর মোহাম্মদ সেন্টু।

যুগান্তরকে তিনি বলেন, আমি কোন মারধর করি নাই। গতকাল রাতে ঘটনাস্থলে রাস্তার কাজের বড় ধরনের একটা লড়ি ফেসে যায়। পাশের বিদ্যুতের খাম্বা, পানির লাইন কিন্তু লড়িটি সেখান থেকে সরানোর মতো কোন লোককে দেখতে পাইনি। সেজন্য আমি তাদের জিজ্ঞেস করেছি আপনাদের কন্ট্রাকটার কোথায়? তাড়াতাড়ি এসব সড়ান। নাহলে বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটবে।

কালকের রাতের ঘটনা সম্পর্কে স্থানীয় কমিশনার তারেকুজ্জামান রাজীব যুগান্তরকে বলেন, কাল রাতে আমার কাছে ফোন আসে কাটাসুরের পুল পাড়ে সিটি কর্পোরেশনের রাস্তার কাজে আমাদের স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি নূর মোহাম্মদ সেন্টু বাধা দিচ্ছেন। এরপর আমি এলাকাবাসীকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই এবং সকলকে অভয় দিলে ফের কাজ শুরু হয়।

ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল থেকে ফেসবুক লাইভে আসেন স্থানীয় কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজীব-

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×