‘হংকং পুলিশ যা পারেনি, ডিএমপি তাই পেরেছে’

  যুগান্তর ডেস্ক ২২ মার্চ ২০১৯, ১৭:২০ | অনলাইন সংস্করণ

‘হংকং পুলিশ যা পারেনি, ডিএমপি তাই পেরেছে’
সিরিয়ান নাগরিকের হাতে ফোন তুলে দেয়া হচ্ছে। ছবি: ফেসবুক

চুরি হয়ে যাওয়া স্মার্টফোনের খোঁজ দিতে পারেনি হংকং পুলিশ কিন্তু ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার ইউনিট তা খুঁজে বের করে দেন। এমনটাই জানিয়েছেন সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের অতিরিক্ত ডেপুটি পুলিশ কমিশনার নাজমুল সুমন।

এ বিষয়ে আজ বেকাল ৩টা ৫৮ মিনিটে নিজের ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন তিনি।

সেখানে তিনি জানান, দারমস ওমর নামের এক সিরিয়ান নাগরিক ব্যবসায়িক কাজে হংকং যান এবং সেখানে তার ব্যবহৃত স্মার্টফোনটি হারিয়ে ফেলেন।

এতে বিপদে পড়েন তিনি। স্মার্টফোনটিতে ছিল ব্যবসা সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ সব তথ্য ও বিভিন্ন অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড।

স্মার্টফোনটি খুঁজে দিতে তিনি হংকং পুলিশের দ্বারস্থ হন। কিন্তু শত চেষ্টা করেও হংকং পুলিশ ব্যর্থ হয়।

এরপর ব্যবসায়িক কাজে দারমস ওমর বাংলাদেশে আসেন এবং এখানেও তার আরেকটি স্মার্টফোন হারিয়ে যায়। তবে বাংলাদেশে হতাশ হতে হয়নি এই সিরিয়ান ব্যবসায়ীকে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার ইউনিট হারানো স্মার্টফোনটি খুঁজে বের করে দেন।

অতিরিক্ত ডেপুটি পুলিশ কমিশনার নাজমুল সুমনের সেই ফেসবুক স্ট্যাটাসটি দেয়া হলো, ‘জনাব ওমর, একজন সিরিয়ান নাগরিক। বিভিন্ন দেশে তার ব্যবসা রয়েছে। ব্যবসার কাজে তিনি একবার হংকং গিয়েছিলেন সেখানে তিনি তার স্মার্টফোনটি হারান, কিন্তু কোনোভাবেই এটা তিনি ফেরত পাননি। যদিও হংকং পুলিশ অনেক চেষ্টা করেছে।

যাই হোক, গত ১৪ মার্চ দারমস ওমর রাত ২টায় বাংলাদেশে অবতরণ করেন। তিনি তার শত তথ্যের ভান্ডার অন্য একটি স্মার্টফোনটি হারান।

তিনি দিশেহারা হয়ে যান, কারন তার ব্যবসায়িক সব তথ্যাদি ও যোগাযোগ এই ফোনেই রয়েছে। অবশেষে তিনি আমাদের দ্বারস্থ হন, যথারীতি আমাদের সম্মানিত ডিসি স্যার এর আদেশে আমাদের টিম কাজে লেগে যায় এই ফোন উদ্ধারে।

উল্লেখ্য, ফোনটি প্রযুক্তিগত ট্র্যাকিং করে উদ্ধার করা হয়নি বরং সাইবার পুলিশ নিজস্ব বুদ্ধিমত্তা ও মেধার মাধ্যমে বটমআপ পদ্ধতিতে যশোর থেকে উদ্ধার করে এই ফোন।

গত ২১ মার্চ জনাব ওমর ফোনটি ফেরত পেয়ে বেজায় খুশি। তিনি হাসির ছলে বলেই ফেললেন, হংকং পুলিশ যা পারেনি তা আপনাদের সাইবার পুলিশ পেরেছে।

অভিনন্দন আমাদের সাইবার ডিভিশন কে! অভিনন্দন এডিসি মুকুল কে! অভিনন্দন সম্মানিত ডিসি আলিমুজ্জান স্যার কে!

উল্লেখ্য, সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের অধীনে শীঘ্রই ‘Lost and found’ নামে একটি সেল গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন পেলেই এই প্রক্রিয়া শুরু হবে।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×