পরিকল্পনা সংলাপে বক্তারা

কাটছাট করে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করায় বাসযোগ্যতা হারাচ্ছে ঢাকা

  যুগান্তর রিপোর্ট ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৮:১৩ | অনলাইন সংস্করণ

বিআইপি

ঢাকা শহরকে বাসযোগ্য করে গড়ে তুলতে বেশকিছু সুষ্ঠু পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর মধ্যে কিছু পরিকল্পনা মোড়ক পর্যন্তই সীমাবদ্ধ রয়েছে। আর কিছু পরিকল্পনা কাটছাট করে বাস্তবায়ন করেছে সরকার। এ কারণে ঢাকাশহর ক্রমেই বাসযোগ্যতা হারাচ্ছে। এজন্য পরিকল্পনার ত্রুটি দায়ী নয়, দায়ী হচ্ছে সরকার।

শনিবার রাজধানীর প্ল্যানার্স টাওয়ারে বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব প্ল্যানার্স (বিআইপি) আয়োজিত ‘নগর উন্নয়ন পরিকল্পনায় সাংবাদিকতার ভূমিকা’শীর্ষক পরিকল্পনা সংলাপে বক্তারা এসব কথা বলেন।

এ পরিকল্পনা সংলাপ বাস্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতায় ছিল নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম বাংলাদেশ। বিআইপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক গোলাম রহমান বলেন, ‘৫২ সালে বুড়িগঙ্গার পানি আমরা হাতে করে খেয়েছি। আর এখন সেই বুড়িগঙ্গার পাশ দিয়ে নাকে রুমাল দিয়ে চলাচল করতে হয়। ঢাকা শহরসহ পরিকল্পিত উন্নয়নের লক্ষে যেসব পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে এগুলোর যথাযথ বাস্তবায়ন হলে বাসযোগ্য হয়ে গড়ে উঠতো ঢাকাসহ অন্যান্য শহরগুলো। এসময় তিনি নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরামের সঙ্গে একযোগে কাজ করার ইচ্ছে ব্যক্ত করেন।’

বিআইপির সহ-সভাপতি অধ্যাপক ড. আকতার মাহমুদ বলেন, ‘ঢাকা শহরকে কেন্দ্র করে যেসব পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে সেগুলো ত্রুটিপূর্ণ ছিল, এটা সঠিক নয়। বরং বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সরকার কাটছাট করে পরিকল্পনাগুলোকে নষ্ট করেছে। টেকনিক্যাল পরিকল্পনা নন-টেকনিক্যাল লোকেরা কাটছাট করে বাস্তবায়ন করায় ঢাকাশহর বাসযোগ্যতা হারাচ্ছে। এখন সুযোগ আছে সরকার চাইলে বিদ্যমান ঢাকাকেও নূন্যতম বাসযোগ্য করে গড়ে তুলতে পারে। এজন্য রাজউকের সংশোধিত ড্যাপকে সঠিকভাবে প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে গুরুত্ব দেয়ার অনুরোধ জানান। এসময় তিনি প্রতিবছর নগর পরিকল্পনা দিবসে নগর সাংবাদিকতা বিষয়ে পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা দেন।’

বিআইপির সভাপতি-২ ফজলে রেজা সুমন বলেন, ‘রাজউক ড্যাপ কীসের ভিত্তিতে প্রণয়ন করছে সেটা এখনো ধোঁয়াশার মধ্যে রয়ে গেছে। বিভিন্ন সময় রাজধানীকে কেন্দ্র করে করে যেসব প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে সেগুলোতে কতটুক অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের পরামর্শ নিয়ে করা হচ্ছে তা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে।’

বিআইপির সাধারণ সম্পাদক ড. আদিল মুহাম্মদ খান বলেন, ‘বিআইপি’র জনগণের কাছে অনেক দায়বদ্ধতা রয়েছে। নিজস্ব অবস্থান থেকে বিআইপি অনেক দিন থেকে সেই দায়িত্ব পালনের চেষ্টা করেছে। তবে ভবিষ্যতে আরও বেশি করে পরিকল্পিত উন্নয়নে জনগনের সহযোগিতার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করবে। এজন্য নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম বাংলাদেশের সঙ্গে একযোগে কাজ করতে চায় আমরা।’

এ পরিকল্পনা সংলাপের সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক ড. আকতার মাহমুদ। বিআইপির সাধারণ সম্পাদক ড. আদিল মুহাম্মদ খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিনিয়র সাংবাদিক তৌফিক আলী। অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন, নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরামের বাংলাদেশের সভাপতি অমিতোষ পাল, সহ-সভাপতি আবুল কাশেম, সাধারণ সম্পাদক মতিন আব্দুল্লাহ, যুগ্ম-সম্পাদক মাহমুদা ডলি, সাংগাঠনিক সম্পাদক খালিদ সাইফুল্লাহ, দফতর সম্পাদক কামরুন্নাহার শোভা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ফয়সাল খান, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক হাসান ইমন, অ্যাপায়ন ও কল্যাণ সম্পাদক মাসুদ রানা, কার্যকরি সদস্য-আহমেদ জামাল, সাজেদা ইসলাম পারুল, সাইদুল ইসলাম প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter