শেখ হাসিনার জন্যই জামায়াতবিহীন পার্লামেন্ট সম্ভব হয়েছে: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

  জবি প্রতিনিধি ২২ মে ২০১৯, ২০:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও বর্তমান বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক
শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও বর্তমান বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জামায়াতবিহীন পার্লামেন্ট শেখ হাসিনার জন্যই সম্ভব হয়েছে। পৃথিবীর কাছে বাংলাদেশ উন্নয়নের উৎকৃষ্ট রোল মডেল, আর এটা সম্ভব হয়েছে শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বের কারণেই।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ফলেই বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সম্ভব হয়েছে। বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যে যারা ছিল তাদের বিচার এখন সময়ের দাবি।

বুধবার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বাংলাদেশ প্রগতিশীল কলামিস্ট ফোরামের উদ্যোগে ‘শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও বর্তমান বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে আ ক ম মোজাম্মেল হক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের পুনর্বাসনে শেখ হাসিনাই সবচেয়ে এগিয়ে আছেন। বাংলাদেশ স্বাধীন সত্ত্বা নিয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের জন্যই।

অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রগতিশীল কলামিস্ট ফোরামের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন হয়েছিল তিনবার। প্রথমবার বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন, দ্বিতীয় বার ১৯৮১ সালে ১৭ মে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন এবং ১/১১ পরবর্তীতে শেখ হাসিনার প্রত্যাবর্তন।

তিনি বলেন, ১/১১ পরবর্তীতে শেখ হাসিনাকে ফিরিয়ে না আনা হলে বাংলাদেশ পাকিস্তানি সামরিক শাসনের মতো চলতো। ক্যান্টনমেন্ট থেকে রাজনীতিকে বের করে আনা ছিল শেখ হাসিনার অন্যতম বড় অবদান।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে ’৭৫ পরবর্তীতে বাংলাদেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর রাজনীতির ধারা হরিয়ে গিয়েছিল, শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমেই বাংলাদেশের পুনর্জাগরণ হয়েছিল।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুষ্টিয়া) উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী, বিশিষ্ট কলামিস্ট অধ্যাপক ড. মিল্টন বিশ্বাস এবং কবি ও প্রাবন্ধিক অধ্যাপক গাউসুর রহমান মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন শিক্ষাবিদ, কলামিস্ট ও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান। এ সময় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কলামিস্ট, সাংবাদিক ও শিক্ষার্থী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×