ক্রিকেট বলে পুলিশের গাড়ির লুকিং গ্লাস ভাঙায় ২ স্কুলছাত্রকে থানায় বন্দি!
jugantor
ক্রিকেট বলে পুলিশের গাড়ির লুকিং গ্লাস ভাঙায় ২ স্কুলছাত্রকে থানায় বন্দি!

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৪:০৬:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর সবুজবাগে রাস্তায় ক্রিকেট খেলতে গিয়ে পুলিশের একটি গাড়ির জানালার কাচ ভেঙে ফেলায় প্রায় দেড় ঘণ্টা থানায় আটকে রাখা হলো দুই স্কুলছাত্রকে।

সোমবার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, থানার পাশের খালি রাস্তায় শিশু-কিশোর ক্রিকেট খেলছিল। এসময় বলের আঘাতে পুলিশের একটি গাড়ির লুকিং গ্লাস ভেঙে যায়। 

এসময় অনেকেই দৌড়ে চলে যায়। পরে মতিঝিল মডেল হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্র এবং এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে সবুজবাগ থানার সামনে থেকে ধরে নিয়ে আটকে রাখে পুলিশ।

এক কিশোরের মা জানান, ওই এলাকায় খেলার কোনো মাঠ নেই। তাই শিশু-কিশোররা যেখানে সুযোগ পায় সেখানেই খেলে। সোমবার বিকালে কয়েক কিশোর থানার কাছে ফাঁকা রাস্তায় ক্রিকেট খেলছিল। 

খেলার সময় হঠাৎ করেই থানার সামনে থাকা পুলিশের একটি গাড়ির লুকিং গ্লাস ক্রিকেট বলের আঘাতে ভেঙে যায়। তখন অন্যরা দৌড়ে পালিয়ে এলেও আমার ছেলেসহ দুজনকে পুলিশ থানায় নিয়ে যায়। তাদেরকে ডিউটি অফিসারের কক্ষে বসিয়ে রাখা হয়।

তিনি আরও বলেন, আমরা গেলে থানা থেকে প্রথমে বলা হয়, অন্য যারা খেলেছিল তাদের না আনলে ওদের ছাড়া হবে না। এতে আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। আমার ছেলের মঙ্গলবার পরীক্ষা, আর অন্যজন তো মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। 

পরে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয় বলে জানান তিনি। 

এ বিষয়ে সবুজবাগ থানার ওসি মো. মাহবুব আলম বলেন, এলাকায় খেলার মাঠ না থাকায় শিশু-কিশোররা রাস্তার ওপরই ক্রিকেট ও ফুটবল খেলে। বিকালে তারা ক্রিকেট খেলার সময় বল লেগে সরকারি একটি গাড়ির লুকিং গ্লাস ভেঙে যায়। 

এ সময় অন্য কিশোররা দৌড়ে চলে যায়। কর্তব্যরত একজন পুলিশ সদস্য তাদের দুজনকে থানায় নিয়ে আসেন। আমাকে বিষয়টি জানানোর সঙ্গে সঙ্গে অভিভাবকদের ডেকে তাদের কাছে দিয়ে দিতে বলি।

তাদের কোনো ভয়ভীতি দেখানো হয়নি বলে দাবি করে ওসি বলেন, তাদের অভিভাবকরা আসতে যতক্ষণ লেগেছে ততক্ষণ তারা থানায় ছিল।

ক্রিকেট বলে পুলিশের গাড়ির লুকিং গ্লাস ভাঙায় ২ স্কুলছাত্রকে থানায় বন্দি!

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০২:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর সবুজবাগে রাস্তায় ক্রিকেট খেলতে গিয়ে পুলিশের একটি গাড়ির জানালার কাচ ভেঙে ফেলায় প্রায় দেড় ঘণ্টা থানায় আটকে রাখা হলো দুই স্কুলছাত্রকে।

সোমবার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, থানার পাশের খালি রাস্তায় শিশু-কিশোর ক্রিকেট খেলছিল। এসময় বলের আঘাতে পুলিশের একটি গাড়ির লুকিং গ্লাস ভেঙে যায়।

এসময় অনেকেই দৌড়ে চলে যায়। পরে মতিঝিল মডেল হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্র এবং এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে সবুজবাগ থানার সামনে থেকে ধরে নিয়ে আটকে রাখে পুলিশ।

এক কিশোরের মা জানান, ওই এলাকায় খেলার কোনো মাঠ নেই। তাই শিশু-কিশোররা যেখানে সুযোগ পায় সেখানেই খেলে। সোমবার বিকালে কয়েক কিশোর থানার কাছে ফাঁকা রাস্তায় ক্রিকেট খেলছিল।

খেলার সময় হঠাৎ করেই থানার সামনে থাকা পুলিশের একটি গাড়ির লুকিং গ্লাস ক্রিকেট বলের আঘাতে ভেঙে যায়। তখন অন্যরা দৌড়ে পালিয়ে এলেও আমার ছেলেসহ দুজনকে পুলিশ থানায় নিয়ে যায়। তাদেরকে ডিউটি অফিসারের কক্ষে বসিয়ে রাখা হয়।

তিনি আরও বলেন, আমরা গেলে থানা থেকে প্রথমে বলা হয়, অন্য যারা খেলেছিল তাদের না আনলে ওদের ছাড়া হবে না। এতে আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। আমার ছেলের মঙ্গলবার পরীক্ষা, আর অন্যজন তো মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী।

পরে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয় বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে সবুজবাগ থানার ওসি মো. মাহবুব আলম বলেন, এলাকায় খেলার মাঠ না থাকায় শিশু-কিশোররা রাস্তার ওপরই ক্রিকেট ও ফুটবল খেলে। বিকালে তারা ক্রিকেট খেলার সময় বল লেগে সরকারি একটি গাড়ির লুকিং গ্লাস ভেঙে যায়।

এ সময় অন্য কিশোররা দৌড়ে চলে যায়। কর্তব্যরত একজন পুলিশ সদস্য তাদের দুজনকে থানায় নিয়ে আসেন। আমাকে বিষয়টি জানানোর সঙ্গে সঙ্গে অভিভাবকদের ডেকে তাদের কাছে দিয়ে দিতে বলি।

তাদের কোনো ভয়ভীতি দেখানো হয়নি বলে দাবি করে ওসি বলেন, তাদের অভিভাবকরা আসতে যতক্ষণ লেগেছে ততক্ষণ তারা থানায় ছিল।