ভোটের তারিখ পেছানোয় যা বললেন মেয়র প্রার্থীরা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ০২:৪৭:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা সরস্বতী পূজার কারণে ঢাকার সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তারিখ পেছানোয় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

শনিবার নির্বাচন কমিশন ভোটের তারিখ ৩০ জানুয়ারি থেকে পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি নির্ধারণ করেছে। এর জন্য এসএসসি পরীক্ষা ১ ফেব্রুয়ারির বদলে ৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হচ্ছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, ভোটের তারিখ না পিছিয়ে এগিয়ে নিলেই ভালো হত।

তিনি আরও বলেন, “নির্বাচন পেছানো নিয়ে আমাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের ভাই-বোনদের আকাঙ্ক্ষা ও আবেগের জায়গা ছিল। যেহেতু সরস্বতী পূজা ৩০ তারিখে। তাদের এই আবেগের জায়গা থেকে আগেই নির্বাচন কমিশনের বিবেচনা করা উচিত ছিল। আমরা দেখেছি, এটা নিয়ে আমাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের ভাই-বোনরা মনঃক্ষুণ্ন বা তাদের মনে কষ্ট ছিল।

“এসএসসি পরীক্ষা ১ ফেব্রুয়ারি হওয়ার কথা ছিল। অনেক গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা। পরীক্ষায় প্রস্তুতির অনেক ব্যাপার থাকে। বিশেষ করে মায়েদের সম্পৃক্ততার একটা ব্যাপার থাকে। তাতে আমি মনে করি, নির্বাচনটা যদি না পিছিয়ে এগিয়ে নেয়া যেত তাতেই ভাল হত। তবে এটা আমার ব্যক্তিগত মতামত। কারণ এসএসসি পরীক্ষা পেছানোয় শিক্ষার্থীদের ক্ষতিই হবে, প্রস্তুতিতে ব্যাঘাত ঘটবে। এমনিতেই নির্বাচনী কার্যক্রমের কারণে তাদের কিছুটা ব্যাঘাত হচ্ছে।”

বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেন, “আমি খুশি যে নির্বাচন কমিশন একটি ভালো সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমি মনে করি যে, যখন তফসিল ঘোষণা করা হয় তখনই বিষয়টি বিবেচনায় রাখা উচিত ছিল। তবে যেহেতু এখন সবার দাবির মুখে ওনারা সিদ্ধান্তটি নিয়েছেন এবং একদিন পিছিয়েছেন- তো এটি একটা ভালো পদক্ষেপ হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন “আমি আশা করছি যে, আমাদের হিন্দু ধর্মালম্বী যারা আছেন তারা হয়ত আরও আনন্দিত হবেন। ভবিষ্যতে যাতে তাদের এই বিষয়গুলো আরও গুরুত্ব সহকারে দেখা হয় সেটাতে আমি জোর দেব।”

নির্বাচনের তারিখ পেছানোয় ঢাকা উত্তরে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেন, “এর মধ্য দিয়ে আবারও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের চেতনার প্রতিফলন ঘটেছে। সকল ধর্মের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য, ধন্যবাদ ইলেকশন কমিশন। প্রতিটি ধর্ম-সম্প্রদায়ের মানুষকে নিয়েই হবে সবাই মিলে, সবার ঢাকা-সুস্থ, সচল ও আধুনিক ঢাকা।”

বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বলেছেন, “আমি খুশি। আমি সাধুবাদ জানাচ্ছি জনগণের পক্ষে বা জনগণের দাবিতে নির্বাচন কমিশন একটা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেটা উচিত ছিল আরও আগে নেয়া। আগে না নেয়া বলেই কিন্তু আবারও নির্বাচন কমিশন তার ব্যর্থতার প্রমাণ দিয়েছেন, তাদের অযোগ্যতার প্রমাণও আবার দিয়েছেন।”

তিনি আরও বলেন, “আমাদের সকল তরুণ ছাত্র-ছাত্রীদের বলছি যে, উনাদের এসএসসি পরীক্ষাও পিছিয়ে গেছে। একই সঙ্গে আমি দুঃখ প্রকাশ করছি যে, মনে যদি কোনো কষ্ট এই মর্মে হয়ে থাকে আমাদের নির্বাচনের জন্য- আমি দুঃখিত সেটার জন্য।”

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত