আধ ঘণ্টায় একটি ভোটও পড়েনি সিইসির কেন্দ্রে

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:২৩ | অনলাইন সংস্করণ

আধ ঘণ্টায় একটি ভোটও পড়েনি সিইসির কেন্দ্রে
ছবি: সংগৃহীত

সকাল সাড়ে ৮টা, শনিবার। রাজধানীর উত্তরা সেক্টর-৫ এলাকার আই. ই. এস স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের এক নম্বর ওয়ার্ডের এই ভোটকেন্দ্রে ভোট দেবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদা।

কিন্তু ভোট শুরুর আধঘণ্টা পার হলেও সেখানে একটি ভোটও পড়েনি। সাত নম্বর কক্ষে দেখা গেছে, ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা অলস সময় পার করছেন। আবার কোনো প্রার্থীর এজেন্টও দেখা গেলো না। পুরো কক্ষই ফাঁকা। এ কক্ষের মতো পুরো ভোটকেন্দ্ররই একই অবস্থা।

এজেন্ট না থাকার কারণ জানতে চাইলে সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ইয়াসমিন হামিদ বলেন, তারা একটু বাইরে গেছেন। আসবে রে। এখন পর্যন্ত কোনো ভোটার আসেনি। কেউ ভোট দেয়নি।

এই ভোট কেন্দ্রে ২৯২৮ জন ভোটার রয়েছেন। এক ঘণ্টায় অনেক কক্ষে একটি ভোটও পড়েনি, এমনকি মহিলা কোনো ভোটারও দেখা যায়নি।

সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা শাহানারা আক্তার বলেন, কক্ষ নম্বর ৪ এ কোনো মহিলা ভোটার এখনো ভোট দিতে আসেননি।

সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ঢাকার দুই সিটিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) চলবে টানা ভোটগ্রহণ। এ উপলক্ষে নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পরই দুই সিটি নির্বাচনে জয়ী জনপ্রতিনিধিদের নাম ঘোষণা করবেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা।

ওই ফলাফলে নির্ধারিত হবে ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র কে- আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম নাকি বিএনপির তাবিথ আউয়াল এবং দক্ষিণ সিটির ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস নাকি ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন।

এ নির্বাচনে প্রমাণিত হবে দলীয়ভাবে আওয়ামী লীগ নাকি বিএনপি বেশি জনপ্রিয়। নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতেই এ নির্বাচনে জয় পেতে মরিয়া প্রধান দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি।

আর নির্বাচন সুষ্ঠু করার মধ্য দিয়ে ইসি ও ইভিএমের গ্রহণযোগ্যতার বিষয়টিও নির্ভর করছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন-২০২০

আরও

'কোভিড-১৯' সর্বশেষ আপডেট

# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ১২৩ ৩৩ ১২
বিশ্ব ১৩,১০,১০২২,৭৫,০৪০৭২,৫৫৭
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×