অবশেষে যে দামে বিক্রি হলো ৬ লাখের ‘ডিপজল’
jugantor
অবশেষে যে দামে বিক্রি হলো ৬ লাখের ‘ডিপজল’

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০২ আগস্ট ২০২০, ১৪:১৬:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

অনেক প্রতীক্ষার পর অবশেষে বিক্রি হলো সাড়া জাগানো গরু ‘ডিপজল’।

ঈদের দিন (শনিবার) রাতে একে দুই লাখ ৮৫ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে বলে জানান গরুটির মালিক দিনাজপুরের এক ব্যাপারী।

ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীর হাজারীবাগের হাটে তোলা হয়েছিল পশুটিকে। শুরু থেকেই ৬ লাখের নিচে ‘ডিপজল’কে বেচবেন না বলে জানিয়ে আসছিলেন বিক্রেতা। কিন্তু করোনাকালে এতো দামে কেউ গরুটিকে না নেয়ায় অবশেষে রাজধানীর লালবাগ থানাধীন রসুলবাগ এলাকার ব্যবসায়ী বাহার উল্লাহ বাদলের কাছে দুই লাখ ৮৫ হাজার টাকায় গরুকে বিক্রি করে দেন।

গরুটি কিনে নেয়া ব্যবসায়ী বাহার উল্লাহ বাদল জানান, প্রতিবছরই কোরবানি ঈদ উপলক্ষে লাখ দেড়েক টাকার বাজেট থাকে আমার। এ টাকা দিয়ে কোরবানির জন্য তিনটি গরু কিনে থাকি। কিন্তু এবার হাটে গিয়ে দেখি পছন্দসই গরু নেই।

তিনি বলেন, ঢাকার হাটে গরু না পেয়ে নারায়ণগঞ্জ গিয়েছি। কুমিল্লায় গিয়েছি। কোথাও ভালো মানের গরু পাইনি। যাও কিছু পেয়েছি সেগুলোর দাম দ্বিগুণ ছিল। এবার কোরবানি দিতে পারব কিনা সে বিষয়ে বেশ চিন্তায় পড়ে যাই। মন খারাপ করে বাড়ি ফিরে আসি। কিন্তু শুক্রবার রাত ১২টার পর খবর পাই হাজারীবাগ হাটে বিশাল আকারের ‘ডিপজল’ নামের যে গরুটি দুই-তিন দিন আগে দেখে এসেছিলেন সেটি বিক্রি হয়নি। সঙ্গে সঙ্গে হাজারীবাগ হাটে ছুটে এসে সেটি কিনে নিই।

৬ লাখ দাম হাঁকানোর পরও কেন ৩ লাখের নিচে ছেড়ে দিলেন এমন প্রশ্নে দিনাজপুরের সেই গরু ব্যাপারী বলেন, পরে চার লাখ টাকার নিচে গরুটি বিক্রি করব না বলে জানিয়েছিলাম। শেষ পর্যন্ত এতো বড় গরুকে বাড়িতে ফেরত নিতে কষ্টসাধ্য ও ঝুঁকিপূর্ণ। তাই বেচে দিলাম।

অবশেষে যে দামে বিক্রি হলো ৬ লাখের ‘ডিপজল’

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০২ আগস্ট ২০২০, ০২:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অনেক প্রতীক্ষার পর অবশেষে বিক্রি হলো সাড়া জাগানো গরু ‘ডিপজল’। 

ঈদের দিন (শনিবার) রাতে একে দুই লাখ ৮৫ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে বলে জানান গরুটির মালিক দিনাজপুরের এক  ব্যাপারী। 

ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীর হাজারীবাগের হাটে তোলা হয়েছিল পশুটিকে। শুরু থেকেই ৬ লাখের নিচে ‘ডিপজল’কে বেচবেন না বলে জানিয়ে আসছিলেন বিক্রেতা। কিন্তু করোনাকালে এতো দামে কেউ গরুটিকে না নেয়ায় অবশেষে রাজধানীর লালবাগ থানাধীন রসুলবাগ এলাকার ব্যবসায়ী বাহার উল্লাহ বাদলের কাছে  দুই লাখ ৮৫ হাজার টাকায় গরুকে বিক্রি করে দেন।

গরুটি কিনে নেয়া ব্যবসায়ী বাহার উল্লাহ বাদল জানান, প্রতিবছরই কোরবানি ঈদ উপলক্ষে লাখ দেড়েক টাকার বাজেট থাকে আমার। এ টাকা দিয়ে কোরবানির জন্য তিনটি গরু কিনে থাকি। কিন্তু এবার হাটে গিয়ে দেখি পছন্দসই গরু নেই। 

তিনি বলেন, ঢাকার হাটে গরু না পেয়ে নারায়ণগঞ্জ গিয়েছি। কুমিল্লায় গিয়েছি। কোথাও ভালো মানের গরু পাইনি। যাও কিছু পেয়েছি সেগুলোর দাম দ্বিগুণ ছিল। এবার কোরবানি দিতে পারব কিনা সে বিষয়ে বেশ চিন্তায় পড়ে যাই। মন খারাপ করে বাড়ি ফিরে আসি। কিন্তু শুক্রবার রাত ১২টার পর  খবর পাই হাজারীবাগ হাটে বিশাল আকারের ‘ডিপজল’ নামের যে গরুটি দুই-তিন দিন আগে দেখে এসেছিলেন সেটি বিক্রি হয়নি। সঙ্গে সঙ্গে হাজারীবাগ হাটে ছুটে এসে সেটি কিনে নিই। 

৬ লাখ দাম হাঁকানোর পরও কেন ৩ লাখের নিচে ছেড়ে দিলেন এমন প্রশ্নে দিনাজপুরের সেই গরু ব্যাপারী বলেন, পরে চার লাখ টাকার নিচে গরুটি বিক্রি করব না বলে জানিয়েছিলাম। শেষ পর্যন্ত এতো বড় গরুকে বাড়িতে ফেরত নিতে কষ্টসাধ্য ও ঝুঁকিপূর্ণ। তাই বেচে দিলাম।
 

 
আরও খবর