এক বছরের মধ্যে সব ঝুলন্ত তার নামিয়ে ফেলা হবে: মেয়র আতিক
jugantor
এক বছরের মধ্যে সব ঝুলন্ত তার নামিয়ে ফেলা হবে: মেয়র আতিক

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০১ অক্টোবর ২০২০, ১৫:০৭:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

এক বছরের মধ্যে সব ঝুলন্ত তার নামিয়ে ফেলা হবে: মেয়র আতিক

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, তারের (ক্যাবল) জঞ্জালের ফলে নষ্ট হচ্ছে ঢাকা শহরের সৌন্দর্য। তাই আগামী এক বছরের মধ্যে ঢাকার সব ঝুলন্ত তার নামিয়ে ফেলা হবে।
বৃহস্পতিবার পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী গুলশান ২-এ ঝুলন্ত তার অপসারণ অভিযানে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।
‘ঝুলন্ত তার অপসারণে সাধারণ গ্রাহকদের যেন ভোগান্তি না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে’ দাবি করে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, আমরা এমনভাবে তার কাটতে বলেছি যেন গ্রাহকদের অসুবিধা না হয়।
তিনি বলেন, অনেক অভিভাবক আমাকে বলেছেন– তাদের ছেলেমেয়েরা বাসায় ইন্টারনেটে ক্লাস করেন। এর জন্য সংস্থাগুলো আমার থেকে সাত দিন সময় নিয়েছেন যেন মোড় বা ক্রসিংয়ের জায়গার তারগুলো না কাটি। এখন শুধু প্রধান সড়কের তার কাটা হচ্ছে।
মেয়র আতিক বলেন, ঢাকায় ঝুলন্ত তারের জন্য বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি), ক্যাবল অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব), ন্যাশনওয়াইড টেরিস্ট্রিয়াল ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক (এনটিটিএন), ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশনসহ (আইএসপিএবি) সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো সবাই দায়ী। আমি যতবার এই ঝুলন্ত তার নিয়ে মিটিং করেছি, তখন এক সংস্থা আরেক সংস্থাকে দায়ী করে। কিন্তু দায়ী এরা আসলে সবাই।
তিনি বলেন, এনটিটিএন লাইসেন্স নিয়েও ১০ বছরে তারা কোনো কাজ করেনি। বিটিআরসি নিয়ন্ত্রক সংস্থা, কিন্তু তারা এগুলো সেভাবে তদারকি করেনি।


এক বছরের মধ্যে সব ঝুলন্ত তার নামিয়ে ফেলা হবে: মেয়র আতিক

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০১ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
এক বছরের মধ্যে সব ঝুলন্ত তার নামিয়ে ফেলা হবে: মেয়র আতিক
ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, তারের (ক্যাবল) জঞ্জালের ফলে নষ্ট হচ্ছে ঢাকা শহরের সৌন্দর্য। তাই আগামী এক বছরের মধ্যে ঢাকার সব ঝুলন্ত তার নামিয়ে ফেলা হবে।
বৃহস্পতিবার পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী গুলশান ২-এ ঝুলন্ত তার অপসারণ অভিযানে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।
‘ঝুলন্ত তার অপসারণে সাধারণ গ্রাহকদের যেন ভোগান্তি না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে’ দাবি করে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, আমরা এমনভাবে তার কাটতে বলেছি যেন গ্রাহকদের অসুবিধা না হয়।
তিনি বলেন, অনেক অভিভাবক আমাকে বলেছেন– তাদের ছেলেমেয়েরা বাসায় ইন্টারনেটে ক্লাস করেন। এর জন্য সংস্থাগুলো আমার থেকে সাত দিন সময় নিয়েছেন যেন মোড় বা ক্রসিংয়ের জায়গার তারগুলো না কাটি। এখন শুধু প্রধান সড়কের তার কাটা হচ্ছে।
মেয়র আতিক বলেন, ঢাকায় ঝুলন্ত তারের জন্য বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি), ক্যাবল অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব), ন্যাশনওয়াইড টেরিস্ট্রিয়াল ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক (এনটিটিএন), ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশনসহ (আইএসপিএবি) সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো সবাই দায়ী। আমি যতবার এই ঝুলন্ত তার নিয়ে মিটিং করেছি, তখন এক সংস্থা আরেক সংস্থাকে দায়ী করে। কিন্তু দায়ী এরা আসলে সবাই।
তিনি বলেন, এনটিটিএন লাইসেন্স নিয়েও ১০ বছরে তারা কোনো কাজ করেনি। বিটিআরসি নিয়ন্ত্রক সংস্থা, কিন্তু তারা এগুলো সেভাবে তদারকি করেনি।